সৈয়দপুরে কাজীপাড়া এলাকার বাসা থেকে বাইসাইকেল চুরি


তোফাজ্জল হোসেন  লুতু,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:
 নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের মোটরসাইকেল ও বাইসাইকেল চুরির ঘটনা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে গেছে।  শহরের বিভিন্ন অফিস-আদালত, বাসা- বাড়ি, মসজিদ, দোকান-পাট, ব্যাংক-বীমা ও মার্কেটের সামনে থেকে এ সব মোটরসাইকেল ও বাইসাইকেল চুরি যাচ্ছে। প্রায় প্রতিদিনই শহরের কোন  না কোন এলাকা থেকে মোটরসাইকেল, বাইসাইকেল চুরির ঘটনায় মালিকরা আতঙ্কগ্রস্থ পড়ে পড়েছেন। একটি সংঘবদ্ধ চোরের দল এ চুরির ঘটনায় জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে। সর্বশেষ  গতকাল শনিবার সকালে শহরের কাজীপাড়া পানির ট্যাঙ্ক সংলগ্ন একটি বাসার নিচতলা থেকে একটি বাইসাইকেলটি চুরি যায়। শহরের উল্লিখিত এলাকার বাসিন্দা বিশিষ্ট সংবাদপত্র ও কুরিয়ার ব্যবসায়ী আলহাজ্ব মো. মজিদুল ইসলামের দ্বিতল বাসার নিচতলা থেকে দিনে দুপুরে এক গৃহ শিক্ষকের বাইসাইকেলটি চুরি গেছে।
জানা গেছে, শহরের উল্লিখিত এলাকার বাসিন্দা বিশিষ্ট সংবাদপত্র ও কুরিয়ার ব্যবসায়ী আলহাজ্ব মো. মজিদুল ইসলাম। আর তাঁর বাসায় এসে ছেলেমেয়ে আরবী পড়ান শহরের বিমানবন্দর সড়কের খাটিয়া মহল্লা বালাপুকুর দারুস সালাম জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন মাওালানা মো. নজরুল ইসলাম। ঘটনার দিন শনিবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৯টার দিকে প্রতিদিনের মতো গৃহ শিক্ষক মাওলানা মো. নজরুল ইসলাম  ব্যবসায়ী মজিদুল ইসলামের ছেলেমেয়েকে আরবী (ইসলাম শিক্ষা) পড়াতে আসেন। এ সময় ওই গৃহ শিক্ষক তাঁর ব্যবহৃত নতুন ফনিক্স বাইসাইকেলটি ব্যবসায়ী মজিদুল ইসলাম মন্ডলের দ্বিতল বাসার নিচতলার গ্যারেজে রেখে ওপরে যান। আর এর ফাঁকে কোন এক সময় ষেকানে ওঁৎ পেতে থাকা চোরেরা গৃহ শিক্ষক নজরুল ইসলামের বাইসাইকেলটি নিয়ে সটকে পড়েন। পরবর্তীতে বাসার মালিক আলহাজ্ব মো. মজিদুল ইসলাম মন্ডল বাসার গ্রাউন্ড ফ্লোরে নেমে এসে দেখেন গৃহ শিক্ষকের বাইসাইকেল সাইকেল গ্যারেজে নেই। পরে অনেক খোঁজাখুজি করেও আর বাই সাইকেলটি হদিস মিলেনি।
 বাসার মালিক মো. আলহাজ্ব মজিদুল ইসলাম মন্ডল জানান, এর আগেও তাঁর বাসার সাইকেল গ্যারেজ থেকে তাঁর ১২৫ সিসির একটি ডিসকভার মোটরসাইকেল চুরি যায়। অদ্যাবধি চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটির সন্ধ্যান পাননি তিনি। এছাড়াও তাঁর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পাশের একটি বাসা থেকে তাঁর ভাগিনার একটি পালসার মোটরসাইকেল চুরি গেছে এর আগেও।
 এছাড়াও গত সপ্তাহে শহরের অদূরে বাড়াইশালপাড়ায় মসজিদের সামনে থেকে মোটরসাইকেল চুরি করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা গণপিটুনির শিকার হয় দুই চোর। তারা বর্তমানে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গত মাসে উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের সামনে থেকে একটি মোটরসাইকেল চুরি যায়।
 সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল হাসনাত খান জানান, মোটরসাইকেল ও বাইসাইকেল চুরির ঘটনায় জড়িত সংঘবদ্ধ চোর চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তারে পুলিশী তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 1740531492253896673

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item