ডোমারে স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করায় লাশ হলো প্রথম স্ত্রী


এ.আই.পলাশ॥ স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ের ঘটনা ধরে ফেলার ঘটনার বিবাদে লাশ হলো প্রথম স্ত্রী নিলুফা বেগম (৪০) নামের তিন সন্তানের জননী। আজ শনিবার(২৮ নভেম্বর/২০২০) সকালে নীলফামারীর ডোমার থানা পুলিশ কেতকীবাড়ি ইউনিয়নের বোদাপাড়া গ্রাম হতে ওই গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করে। ওই গৃহবধু উক্ত গ্রামের তৈয়বুর রহমানের স্ত্রী। অভিযোগ পরিকল্পিতভাবে নিলুফাকে তার স্বামী হত্যা করেছে। পুলিশ নিলুফার স্বামীকে আটক করেছে।
অভিযোগে মতে, নিলুফার স্বামী তৈয়বুর পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। লুকিয়ে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে কথা বলতে গিয়ে ধরা পড়ে স্ত্রীর কাছে। গতকাল শুক্রবার(২৭ নভেম্বর) রাতে এ নিয়ে এলাকার মহৎ প্রধানরা বৈঠকে বসেন। বৈঠকে তৈয়বুর পরকিয়া প্রেমের মাধ্যমে দ্বিতীয় বিয়ে করার কথাটি স্বীকার করেন। এ নিয়ে বৈঠকে কোন সমাধান হয়নি। বরং মহৎ প্রধানরা নিলুফাকে আইনের আশ্রয় নেয়ার জন্য পরামর্শ দেন। কিন্তু আজ শনিবার সকালে লাশ হলো নিলুফা।
ঘটনাটি এলাকায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে ডোমার থানার সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার জয়ব্রত পাল, ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান, চিলাহাটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নুরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় পুলিশ নিলুফার স্বামীকে আটক করে।
ডোমার থানার সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার জয়ব্রত পাল সাংবাদিকদের বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামীকে আটক করা হয়েছে। লাশের ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলেই “হত্যা না আত্মহত্যা” রহস্যের উদঘাটন হবে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 3537234929836434043

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item