সৈয়দপুরে গ্যারেজ থেকে প্রায় সাড়ে ৮ লাখ টাকার ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার ব্যাটারি লুট


তোফাজ্জল হোসেন  লুতু,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:

 নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরে একটি গ্যারেজ থেকে সাড়ে ৮ লাখ টাকার ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার ব্যাটারি লুট হয়েছে। বুধবার দিবাগত গভীর রাতে উপকন্ঠে কুন্দল পশ্চিমপাড়া সংলগ্ন সৈয়দপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের পাশে ছকি অটোরিকশা গ্যারেজে ওই লুটের ঘটনাটি ঘটেছে।  ১০/১৫ জনের মুখোশপড়া একটি দল পিকআপ নিয়ে এসে গ্যারেজের নৈশপ্রহরীকে মারপিট করে বেঁধে রেখে ১৪টি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার ব্যাটারি লুট করে নিয়ে গেছে। লুট করে  নিয়ে যাওয়া অটোরিকশার ব্যাটারির মূল্য সাড়ে ৮ লাখ টাকা।


 জানা গেছে, শহরের উল্লিখিত এলাকার ছকি অটোরিকশা গ্যারেজে বিভিন্ন এলাকার ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা মালিক ও চালকরা রাতের বেলা তাদের অটোরিকশা রেখে চার্জ দিয়ে থাকেন। প্রতিদিনের মতো ঘটনার দিন গত বুধবার রাতে বেশকিছু অটোরিকশা মালিক ও চালক তাদের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ওই গ্যারেজে রেখে নিজ নিজ বাড়িতে চলে যান। আর ওই দিন রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে ১০/১৫ জনের মুখোশপড়া  একটি দল একটি পিকআপে এসে ওই গ্যারেজে হানা দেয়। তারা গ্যারেজের প্রধান দরজা ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে এবং নৈশপ্রহরী মো. আল আমিনকে (২৩) মারপিট করে হাত-পা বেঁধে রেখে ফেলে রাখে। এরপর  তারা গ্যারেজের থাকা ১৪ টি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ব্যাটারি সেট খুলে তাদের নিয়ে আসা পিকআপে করে নিয়ে সটকে পড়েন। সকালে অটোরিকশা চালকরা তাদের অটোরিকশা নিতে এসে ব্যাটারি লুটের ঘটনাটি টের পান।

  শহরের কুন্দল পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা গ্যারেজ মালিক জনৈক ছকিমুদ্দিনের ছেলে মো.  মুন্না জানান, তাদের গ্যারেজে প্রতিদিন দুইজন করে নৈশপ্রহরী থাকলেও ঘটনার দিন আল আমিন নামের একজন নৈশ প্রহরী ছিলেন। ডাকাতদল তাকে  বেদম মারপিট করে হাত পা বেঁধে  ফেলে রেখে ১৪টি  অটোরিকশার ব্যাটারি খুলে নিয়ে গেছে। তিনি জানান, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা পাঁচটি ব্যাটারির একটি সেট থাকে। যার একটি অটোরিকশার সামনে ও চারটি পেছনে থাকে।  অটোরিকশার এক সেট ব্যাটারি মূল্য ৬০ হাজার টাকা। সে হিসেবে ১৪ সেট ব্যাটারি মূল্য প্রায় সাড়ে ৮ লাখ টাকা।

উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের কুঠিপাড়ার অটোরিকশা চালক মো. শাহিন বলেন, তিনি মো. ফেরদৌস নামের অটোরিকশা মালিকের অটোরিকশা ভাড়ায় নিয়ে চালান। ঘটনার দিন সারাদিন অটোরিকশা চালিয়ে রাত আনুমানিক ১০টার দিকে গ্যারেজে এসে অটোরিকশা গ্যারেজ করে চার্জে দিয়ে বাড়িতে চলে যান। পরদিন গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে এসে গ্যারেজ  থেকে অটোরিকশার ব্যাটারি লুটের ঘটনাটি জানতে পারেন। একই ইউনিয়নের শ্বাষকান্দর গ্রামের মো. সাইদুল ইসলাম জানান, তাঁর একটি মাত্র অটোরিকশা। তিনি নিজেই সেটি চালান। ঘটনার দিন রাত ৮টার দিকে ওই গ্যারেজে অটোরিকশা গ্যারেজ করে বাড়িতে যান। পরদিন সকালে এসে গ্যারেজের অটোরিকশার ব্যাটারি লুট হয়েছে বলে গ্যারেজ মালিক তাকে জানান।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্যারেজটিতে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়  ব্যাটারি খুলে নিয়ে যাওয়া অটোরিকশাগুলো গ্যারেজে মধ্যে পড়ে রয়েছে। আর অটোরিকশা মালিক ও চালকরা গ্যারেজের বসে রয়েছেন।

 এদিকে, অটোরিকশা গ্যারেজ থেকে ব্যাটারি লুটের খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. রেজাউল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। 

 সৈয়দপুর থানার  ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক  (এসআই) মোছা. জেসমিন আক্তার জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে এ ঘটনায় কোন লিখিত অভিযোগ পায়নি।


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 1967222936374113178

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item