নবাবগঞ্জে সরকারিভাতা দেয়ার নাম করে প্রতারণা


অলিউর রহমান মেরাজ নবাবগঞ্জ দিনাজপুর প্রতিনিধি :


দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে অসহায় ও দরিদ্র মানুষকে সরকারিভাতা পাইয়ে দেয়ার কথা বলে টাকা নিয়ে প্রতারণা করার অভিযোগে মঞ্জুরুল ইসলাম(২৬) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন স্থানীয় জনতা। এ ঘটনায় উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শুভ্র প্রকাশ চক্রবর্তী আটক যুবকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।


বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কুশদহ ইউনিয়নে খলিফাপাড়া থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক মঞ্জুরুল ইসলাম জেলার বিরামপুর উপজেলার দিওড় ইউনিয়নের দিকসহ গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে। নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অশোক কুমার চৌহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


কুশদহ ইউপি চেয়ারম্যান সায়েম সবুজ বলেন, বিগত কয়েকমাস ধরে আমার ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের সাধারণ মানুষের নিকট থেকে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা ও অন্যান্য ভাতাভোগীদেরকে ব্যাংকে টাকা রাখাসহ বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে আসছিল। এমন অভিযোগের পর পুরো ইউনিয়নে মাইকিং করে কোনো প্রকার প্রতারণার ফাঁদে পা না দেয়ার জন্য জনগণকে সতর্ক করা হয়।


বৃহস্পতিবার দুপুরে খলিফাপাড়া ইসরাফিল নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে গিয়ে উত্তোলিত ভাতার টাকা ব্যাংকে সঞ্চয় করার প্রস্তাব দিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে ওই যুবক। পরে ওই ব্যক্তি স্থানীয় ইউপি সদস্য সাদিকুল ইসলামকে খবর দিলে তিনি এসে ওই যুবককে আটক করে থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করেন।


নবাবগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা অফিসার শুভ্র প্রকাশ চক্রবর্তী বলেন, উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের সহজসরল মানুষের কাছ থেকে অভিনব কায়দায় প্রতারণার মাধ্যমে টাকা নেয়ার অভিযোগ পেয়ে গত ৯ নভেম্বরে নবাবগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। আজকের এ ঘটনার পর ওই প্রতারকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।


থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান জানান, প্রতারণার ঘটনায় স্থানীয় জনতা ওই যুবককে আটক করে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে থানায় নিয়ে আসে। প্রতারণার অভিযোগ এনে আটক ওই যুবকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে।

পুরোনো সংবাদ

দিনাজপুর 8754606498760783639

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item