সৈয়দপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের ঘটনার আদৌ কোন সত্যতা নেই

তোফাজ্জল হোসেন লুতু,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার ২ নম্বর কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. এনামুল হক চৌধুরী তাঁর বিরুদ্ধে ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা আদৌ সত্য নয় বলে দাবি করেছেন। আজ রবিবার বিকেল ৫ টায় শহরের একটি হোটেলে  আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওই দাবি করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য বলেন আওয়ামী লীগ নেতা ও কাশিরাম বেলপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক চৌধুরী।

 সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়,  ঈদুল আজহা উপলক্ষে আমার ইউনিয়নের ভিজিএফ কার্ড বরাদ্দ ছিল ৯ হাজার ৯৯৮ টি। গত ২৭ জুলাই থেকে আমি ভিজিএফ এর চাল বিতরণ শুরু করি।ভিজিএফ চাল বিতরণের শেষ দিন ছিল ২৯ জুলাই। ওই দিন ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে ৪শ’ থেকে ৫শ’ জন উপস্থিত সুবিধাভোগীর সংখ্যা ছিল। গোডাউনে চালও মজুদ ছিল। কিন্তু চালের ঘাটতি হতে পারে এমন আশংকায় আমি উপস্থিত লোকদের বলি আজ নয়, আগামীকাল ৩০ জুলাই চাল দেওয়া হবে। আমি আমার ঘোষণা মতে ৩০ জুলাই সাত সরকারি কর্মকর্তার উপস্থিতিতে অবশিষ্ট লোকদের মাঝে ভিজিএফ’র চাল সুষ্ঠুভাবে বিতরণ সম্পন্ন করি। এ কারণে প্রতিপক্ষের আনিত অভিযোগ ধোপে টিকেনি। তদন্ত কমিটি কোন প্রকার অনিয়ম পায়নি।

তিনি  আরো বলেন আমার ইউনিয়নে সাতটি এতিমখানা রয়েছে। করোনাকালে এতিমখানায় থাকা এতিমরা অসহায় অবস্থায় আছে জেনে আমি সেগুলোতেও  ভিজিএফ’র চাল দিয়েছি। জননেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা যেকোন মূল্যে মানুষকে বাঁচাতে হবে। আর কোন মানুষ যাতে না খেয়ে না থাকেন সেই অভিপ্রায়কে ঘিরে আমি এতিমখানাগুলোতে কিছু করে চাল দিয়েছি। আর  সুবিধাভোগী কাছ থেকে ভিজিএফ এর স্লিপ কেঁড়ে  নিয়ে পোড়ানোর কোন ঘটনা ঘটেনি। কিন্তু আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা কিছু সংবাদকর্মীকে মিথ্যে ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করেন। তারা আমার বিরুদ্ধে বানোয়াট অপপ্রচারও চালায়। আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন একনিষ্ঠ কর্মী। আওয়ামী লীগের কোন বদনাম হোক তেমন কাজ আমার দ্বারা সম্ভব নয়।  আর আমি  কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের চার চারবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। আমি চেয়ারম্যান হিসেবে থাকাকালে কখনও কোন সময়  কোন রকম অনিয়মের প্রশ্রয় দেয়নি। আগামী দিনে আরো দিবো না ইন্নাশাল্লাহ্।

 সংবাদ সম্মেলনে তিনি জোর দিয়ে বলেন ভিজিএফ এর চাল আত্মসাতের ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনের গঠিত তদন্ত কমিটিও তদন্ত করে কোন সত্যতা পায়নি। 

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আখতার হোসেন বাদলসহ  স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।     


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 3700736923107238031

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item