জলঢাকায় একই পরিবারের ৩জন করোনায় আক্রান্ত


মর্তুজা ইসলাম, জলঢাকা প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায় একই পরিবারের ৩ জনের দেহে করোনা পজেটিভ ধরা পরেছে। তারা হলেন নাত-বউ সহ স্বামী-স্ত্রী। এ নিয়ে উপজেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ জনে।  উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আবু হাসান মোঃ রেজওয়ানুল কবীর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, আজ শনিবার সকালে ঢাকা থেকে আসা নমুনা টেস্টে নতুন করে একই পরিবারের ২ জনে শরীরে  করোনা পজেটিভ এসেছে। এর আগে ঐ পরিবারের আরো এক ৬৮ বছরের বৃদ্ধার শরীরে করোনা পজেটিভ ধরা পরে। আক্রান্ত ৩জন উপজেলার গোলমুণ্ডা ইউনিয়নের তিলাই গ্রামের একই পরিবারের  সদস্য। 

গত ২৬ মে ঐ পরিবারের একজনের দেহে করোনা পজেটিভ ধরা পড়লে ২৭ মে পরিবারের অন্য ১৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠায় জলঢাকা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। আজ শনিবার সকালে ঐ পরিবারের নতুন করে ২ জনের দেহে করোনা পজেটিভ ধরা পরায় তাদেরকে নিজ বাড়ীতে হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা প্রদান করছে স্বাস্থ্যবিভাগ। এদিকে উপজেলা প্রশাসন পাশাপাশি দুইটি বাড়ীকে লকডাউন ঘোষনা করে। ডাঃ আরিফ হাসনাত জানান, জলঢাকা উপজেলায় আজকে ২জনসহ মোট ১১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়। এর মধ্য ৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছে। ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২ জন নীলফামারী সদর হাসপাতাল ও ১ জনকে জলঢাকা হাসপাতাল আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। এবং ৩জনকে হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। 

পুরোনো সংবাদ

হাইলাইটস 1758301959346715553

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item