নির্দেশনা অমান্য করে গভীর রাতে চলছে যাত্রীবাহী বাস


মেহেদী হাসান উজ্জ্বল,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের পক্ষ থেকে সারা দেশে সামাজিক দুরত্ব বজায়রাখাসহ গণপরিবহন বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হলেও,সারকারের এই নির্দেশনা অমান্য করে গভীর রাতে চলছে যাত্রীবাহী বাস ও ভাড়ায় চালিত মাইক্রোবাস। 
গত ২৪ মার্চ সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে গণপরিবহন লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 
তবে ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, ওষুধ, জরুরি সেবা, জ্বালানি,পচনশীল পণ্য পরিবহন এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।পণ্যবাহী যানবাহনে কোনো যাত্রী পরিবহন করা যাবে না বলেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। কিন্তু সরকারের এই নির্দেশনা অমান্য করে প্রতিদিন গভীর রাতে গোপনে চলছে যাত্রীবাহী বাসসহ ভাড়ায় চালিত মাইক্রোবাস। এতে করে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার শংকায় পড়েছে সাধারণ মানুষ।
৩এপ্রিল শুক্রবার সরেজমিনে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলায় স্থানীয় নিমতলা মোড় ও ঢাকা মোড় নামক স্থানে রাত ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়কে প্রায় ২০-২৫টি যাত্রীবাহী বাসসহ ভাড়ায় চালিত মাইক্রোবাস ছেড়ে যেতে দেখাযায়।
এদিকে ফুলবাড়ী উপজেলার পার্শবর্তী সীমান্ত এলাকা দেশমা নামক স্থান থেকে ঢাকা মেট্রো (ব-১১-৯৯-২৫)ওয়েলকাম ট্রাসপোর্ট নামে একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকা বাইপাল আশুলিয়া যাওয়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসলে, উপজেলার বেতদিঘি ইউনিয়নের পাকড়ডাঙ্গা নামক স্থানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশ ওই যাত্রীবাহী বাসটি আটক করে। 
বাসটি তল্লাশী চালালে, বাসে থাকা যাত্রী উপজেলার দেশমা বাজারের নুর ইসলামের ছেলে রনি (২০)  ২ বোতল ফেন্সিডিলসহ এবং সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার আরাফাত উদ্দিন এর ছেলে হাছান (৩২) কে ১ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক করে বাসটি ছেড়ে দেন পুলিশ। এঘটনায় ৩এপ্রিল রাতেই আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এব্যাপারে জানতে চাইলে ফুলবাড়ী থানার অফিসার্স ইনচার্জ ওসি ফকরুল ইসলাম বলেন,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই যাত্রীবাহী বাসটি আটক করে দুইজন যাত্রীর কাছে ফেন্সিডিল পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে মাদকের মামলা দিয়ে তাদের হাজতে প্রেরন করা হয়েছে এবং যেহেতু সরকারী ভাবে গনপরিবহন বন্ধের ব্যাপারে কোনো লিখিত কোনো নির্দেশনা আমরা পাইনি তাই মানবিক দিক বিবেচনা করে বাসটি ছেড়ে দেয়া হয়েছে। 
তবে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের পক্ষ থেকে সারা দেশে লক ডাউনসহ গণপরিবহন বন্ধ রাখার ঘোষণা দিলেও তা অনেকেই মানছেনা। এতে অনেকটাই হিমশিম খেতে হচ্ছে আইন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার লোকেদের।



পুরোনো সংবাদ

নির্বাচিত 341550855028573341

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item