আদালত কর্তৃক নীলফামারী জেলা পরিষদের নিয়োগে নিষেধাজ্ঞার কারন দর্শানোর নোটিশ

বিশেষ প্রতিনিধি॥ আদালতে দায়ের করা মামলায় নীলফামারী জেলা পরিষদের তিনটি পদে নিয়োগ প্রক্রিয়ার কার্যক্রমে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা কেন জারী করা হবে না তার কারন দর্শানোর আদেশ প্রদান করেছে  আদালত। ১৪ দিনের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সহ অন্যান্য বিবাদীগনকে। আগামীকাল শনিবার (৮ জুলাই) ওই তিন পদে নিয়োগ পরীক্ষা হবার দিন ধার্য্য ছিল জেলা পরিষদ ভবনে।
জানা যায়, চলতি বছরের ১৩ জুন জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সহকারী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম স্বাক্ষরিত সাঁটলিটিকার, নি¤œমান সহকারী কাম-মুদ্রাক্ষরিক ও ইলেকট্রিশিয়ান পদে একজন করে তিনটি পদে লোক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

আদালতের দায়ের করা মামলার আরজিতে দেখা যায়, জেলা পরিষদের ইলেকট্রিশিয়ান পদে ১৯৯২ সালের ১৮ এপ্রিল হতে অস্থায়ীভাবে চাকুরী করে আসছেন জেলা সদরের আরাজি কানিয়ালখাতা শাহপাড়া গ্রামের মৃত আফছার আলীর ছেলে শহিদুর রহমান। তার চাকুরী স্থায়ীকরন না করে ওই পদে নতুন করে লোক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিকে অবৈধ দাবি করে ইলেকট্রিশিয়ান শহিদুর রহমান ৩০ জুন সদর থানা সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন (মামলা নম্বর অন্য নম্বর ৯৮/১৯)। মামলায় বিবাদী করা হয় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী প্রকৌশলীকে।

শুক্রবার (৫ জুলাই) বাদীর আইনজীবি হাসনাইন ইমাম সোহেল জানান, বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকাল ৫টায় বিজ্ঞ আদালত ওই মামলার শুনানী শেষে উক্ত নিয়োগটি অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা প্রদান করা হইবে না কেন তা ১৪ দিনের মধ্যে উক্ত বিবাদীদের কারন দর্শানোর জন্য আদেশ প্রদান করেন। #

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 8725053533619324224

অনুসরণ করুন

মুজিব বর্ষ

Logo

সর্বশেষ সংবাদ

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item