তেঁতুলিয়ায় বিদ্যুতের আগুনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, মহা সড়ক অবরোধ, আহত ১০

সাইদুজ্জামান রেজা,পঞ্চগড় প্রতিনিধি ।
পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় মধ্যরাতে বৈদ্যুতিক অগ্নিকান্ডে ৩টি ঘর ভষ্মীভূত হয়েছে। এ সময় প্রায় ২০ টি বাড়ীর বৈদ্যুতিক মিটার, টিভি, ফ্যান, ফ্রিজ, মটরসহ অনেক ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশ পুড়ে যায় । এর মধ্যে একটি বাড়ীর প্রায় ২০ লক্ষ নগদ টাকাসহ ঘর, ঘরের আসবাবপত্র সব কিছুই পুড়ে ছাই হয়েছে ।
এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ১০ জন । এদের মধ্যে গুরুতর আহত মামুন (৩২), হামিদুল ইসলাম (২৮) ও মোছা.সেলিনা (২৬)। তাদের দ্রুত ঘটনাস্থল হতে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয় । মামুনের অবস্থা জটিল হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জেলা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে । এ ঘটনায় তেঁতুলিয়া আবাসিক প্রকৌশলী কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের চরম গাফিলতির কারণে এই ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারসহ এলাকাবাসী ।শুক্রবার (৩০ জুন) রাত ৩ টায় উপজেলা শালবাহান রোড মাঝিপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে । এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার জানায়, রাতে সবাই যখন গভির ঘুমে হঠাৎ বৈদ্যুতিক তারে আগুন লাগতে দেখে আতংকে উঠি। আমাদের আর্তচিৎকার শুনে ছুটে আসে প্রতিবেশীরা। এসময় মামুনের  স্ত্রী-সন্তানসহ অন্যান্যকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত হন হামিদুল ও তার স্ত্র্রী সাহিদা খাতুন। এসময় পাশের বাড়িতে আগুন দেখে নিজের ঘরের বিদ্যুতের সুইচ বন্ধ করতে গিয়ে বিদ্যুৎ পিষ্ট হয়ে সেলিনা আক্তার নামের আরেক নারীর দু হাত পুড়ে যায় ।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন ফায়ার সার্ভিস, মডেল থানা পুলিশ। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে পারলেও বৈদ্যুতিক লাইন বন্ধ না হওয়ায় চরম আতংকে কান্নাকাটি করতে থাকে পরিবারগুলো। বিদ্যুৎ লাইন বন্ধের জন্য বারবার আবাসিক প্রকৌশলী কার্যালয়ের কর্মকর্তা/কর্মচারীকে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলেও ফোন রিসিভ না করার অভিযোগ এলাকাবাসির। পরে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় বিদ্যুতের জাতীয় গ্র্রীডে বিদ্যুৎ বন্ধ করা হয় বলে জানা যায়।

এলাকা বাসী মো: রানা জানায় এখানে যে সমস্থ বৈদ্যুতিক তার লাগানো হয়েছে তা ফাটা তারে বাসে গাছে তার এনে সংয়োগ দেয়া হয়েছে তাই এ র্দুঘটনা । ক্ষতিগ্রস্ত  জাকারিয়া জানান, আমার ঘরের টিভি, কারেন্টের লাইন ও মটর পুড়ে গেছে। পাশের বাড়ি হেলাল ও হামিদুলেরও একই ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম শাহিন, নির্বাহী অফিসার সানিউল ফেরদৌস ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থদের সাহায্য-সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার গুলো ক্ষতিপুরনের দ্বাবীতে শুক্রবার (৩০ জুন) দুপুর ৩ টায় তেঁতুলিয়া পঞ্চগড় মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে । এরপর সন্ধা ৬টা ২০ মিনিটে সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইয়াসিন আলী মন্ডল, উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম শাহিন, নির্বাহী অফিসার সানিউল ফেরদৌস এর প্রচেষ্টায় ক্ষতিপুরনের প্রতিশ্রতিতে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয় ।




পুরোনো সংবাদ

পঞ্চগড় 8038859392690429902

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item