পীরগাছায় গরু চুরি আতঙ্ক, ২ কুখ্যাত গরু চোর গ্রেফতার


পীরগাছা(রংপুর)প্রতিনিধিঃ

রংপুরের পীরগাছায় গরু চুরি আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত এক সপ্তাহে কৃষকের ৮টি গরু খোঁয়া যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ একাধিক স্থানে অভিযান চালিয়ে খোঁয়া যাওয়া ৩টি গরু উদ্ধারসহ দুই কুখ্যাত গরু চোরকে গ্রেফতার করেছে।

রবিবার(২০ ডিসেম্বর) বিকালে আটককৃত দুই গরু চোরকে গ্রেফতার দেখিয়ে জেল হাজতে পাঠানো হয়।


গ্রেফতারকৃতরা হলেন উপজেলার কৈকুড়ী ইউনিয়নের চালুনিয়া গ্রামের নওয়াব আলীর ছেলে আউয়াল মিয়া ও তালুক পারুল গ্রামের ছাত্তার মিয়ার ছেলে ফরহাদ মিয়া।


পীরগাছা থানার পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ওই দুই গরু চোরকে আটক করেন। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার গভীর রাতে থানার এস আই হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ উপজেলার পবিত্রঝাড় পাঠান পাড়া গ্রামের সাফাত উল্লাহর ছেলে শরিফুল ইসলামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৩টি চোরাই গরু উদ্ধার করা হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে শরিফুল ইসলাম পালিয়ে যায়।

গত ১৫ দিন ধরে পীরগাছা উপজেলার সর্বত্র গরু চুরি আতঙ্ক বিরাজ করছে। গরু চুরি ঠেকাতে প্রশাসন গভীর রাতে মাইকিং করে কৃষকদের গোয়াল ঘরে থাকাসহ রাত জেঁগে গরু পাহারা দেওয়ার আহবান জানিয়ে আসছেন। পাশাপাশি গরু চুরি ঠেকাতে গ্রাম পুলিশরা তাদের নিজ নিজ এলাকায় রাতভর টহল দিচ্ছেন। তীব্র শীত ও ঘন কুয়াশাকে কাজে লাগিয়ে গরুচোররা বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন।

কান্দি কাবিলা পাড়া গ্রামের কৃষক আজিজুল ইসলাম বলেন, আমি ৫টি গরু নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি। পাশের নিজপাড়া গ্রামে গত এক সপ্তাহ আগে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা মূল্যের ৩টি গরু চুরি হয়েছে। এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এখন নিরুপায় হয়ে গরুগুলি রাত জেগে পাহারা দিতেছি।

পীরগাছা থানার উপ-পরিদর্শক(এস আই) হুমায়ুন কবির বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৩টি চোরাই গরু উদ্ধার ও দুই গরু চোরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। বাকী চোরাই গরু উদ্ধার ও চোরদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


পীরগাছা থানার ওসি আজিজুল ইসলাম বলেন, পীরগাছা উপজেলায় আর কোন স্থানে যাতে গরু চুরির ঘটনা না ঘটে সে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।


পুরোনো সংবাদ

রংপুর 6536740605637122354

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item