ডোমারে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে গৃহবধুকে মারধরের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানের নামে মামলা,গ্রেফতার ১

আবু ফাত্তাহ্ কামাল (পাখি),স্টাফ রিপোর্টার ঃ নীলফামারীর ডোমারে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে এক গৃহবধুকে ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক মারধরের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে ।এ ঘটনায় এক জনকে আটক করেছে ডোমার থানা পুলিশ।ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ভোগডাবুড়ী ইউনিয়নের গোসাইগঞ্জ ডাঙ্গা পাড়া গ্রামে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে নির্যাতনের শিকার রমিছা ।
মামলা সুত্রে জানা যায়, উপজেলার ভোগডাবুড়ী ইউনিয়নের গোসাইগঞ্জ ডাঙ্গা পাড়া গ্রামে বাচ্চা মিয়া (৫০) তার  স্ত্রী রমিছা বেগম (৪৫) ও কন্যা রানী বেগম(১৩)কে রেখে জীবিকার তাগিদে ঢাকায় রিক্সা চালায়। রমিছা তার সম্পর্কের ভাই ডাঙ্গাপাড়া আদর্শ গ্রামের মৃত আব্দুলের ছেলে  ইব্রাহীম (৭০)  ভাই বোনের সম্পর্কের সুবাদে দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে তাদের দেখাশোনা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার (৪ই মার্চ) রাত ৯টায় রমিছার বাসায় গিয়ে কিছু বাজার  দিয়ে ফেরার পথে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা এলাকার কিছু বখাটে ইব্রাহিমকে আটক করে । মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মারধর করে। পরে ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনা স্থলে এসে ইব্রাহীমের সাথে রমিছার অবৈধ সম্পর্ক আছে মর্মে রমিছাকে স্বীকার করতে বলে। রমিছা তার কথায় রাজি না হওয়ায় ভোগডাবুড়ী ইউপি চেয়ারম্যান একরামুল হক রমিছাকে বেধরক মারপিট করে ।থুতু ফেলে পূনরায় তা চাটিয়ে নিয়ে জোর পূর্বক ইব্রাহীম, রমিছা ও তার মেয়ে রানী (১৩)’র কাছ থেকে নন জুডিশিয়াল ১৫০ টাকা মূল্যের ফাকা ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয় বলে অভিযোগ করে। একপর্যায়ে চেয়ারম্যান তার লোকজন দিয়ে ইব্রাহীমের গোয়ালঘর থেকে ৪৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি গরু নিয়ে যায় । পরদিন চেয়ারম্যান সেই গরুটি বিক্রি করে। রমিছা গুরুতর আহত অবস্থায় ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। রমিছার স্বামী বাচ্চা মিয়া পরদিন(৮ইমার্চ)বাড়ীতে এসে চেয়ারম্যান একরামুল হককে প্রধান আসামী করে ৭ জনের বিরুদ্ধে নারী,শিশু আইনে ১০ ধারায় ততসহ দন্ডবিধি আইনে ডোমার থানায় মামলা দায়ের করে।মামলা নং- ০২, তারিখ- ০৭/০৩/২০২০ইং।
এ ব্যাপারে ভোগডাবুড়ী ইউপি চেয়ারম্যান একরামুল হককে (০১৭১৮৪১৮৫৭৩)একাধিকবার মোবাইল করলেও তিনি রিসিভ করেন নাই ।
ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন,এজাহারভুক্ত ৭নং আসামী ডাঙ্গাপাড়া আদর্শ গ্রামের মঙ্গলের ছেলে রতন (৩২) কে গ্রেফতার করে জেলা কারাগারে পাঠানো  হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 8408763999508335173

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item