ফুলবাড়ীতে জমে উঠেছে ঈদের বাজার।বাহুবলী, কাটাপ্পাসহ ভারতীয় পোশাকের জয়জয়কার

মোঃ মেহেদী হাসান উজ্জল ফুলবাড়ী(দিনাজপুর) প্রতিনিধি

ফুলবাড়ীতে জমে উঠেছে ঈদের বাজার।ঈদ যত ঘনিয়ে আসছে ফুলবাড়ীতে তত কেনাকাটায় জমে উঠেছে বাজারের দোকানগুলো । পুরুষের তুলনায় মহিলা ক্রেতার সংখাবেশী দেখা যাচ্ছে। অন্যান্য বছর যেমন রজমানের ২য় সপ্তাহ থেকেই বাজারে কেনাকাটার ধুম পড়ে যায়, এবার তার ব্যাতিক্রম ঘটেছে। তবে কাটা কাপড়ের দোকানে রোজার দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই কেনাকাটা শুরু হয়েছে। বর্তমানে পৌর বাজারের সব ধরণের দোকানে বেচাকেনা পুরোদমে শুর হয়েছে  বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।
গত বছরের তুলনায় এবার কাপড় জুতাসহ সব রকমের আইটেমের দাম বেশি বলে ভুক্তভোগী ক্রেতা সাধারণ অভিমত প্রকাশ করেছেন। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ক্রেতা সাধারনদের উপচে পড়া ভীড়  লক্ষ্য করা যাচ্ছে।
তবে ইফতারীর পর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত দোকানে ভিড় বেশি থাকছে। ফুলবাড়ী ও আশেপাশের এলাকায় পুরোদমে রোপা আমন চাষ শুরু না হওয়ার ফলে দিনমজুরদের হাতে এবার টাকা-পয়সা নেই বলে অবস্থা দৃষ্টে মনে হচ্ছে।
এবার ফুলবাড়ী বাজারে শাড়ী, থ্রি-পিস, সালোয়ার, কামিজ, জিন্স প্যান্ট, টি-শার্ট প্রভৃতি কাপড়ের আইটেমসহ রকমারী জুতা স্যান্ডেলের সমাহার রয়েছে। বাচ্চাদের কাপড়ের আকর্ষণীয় ডিজাইন ও বাহারী রংঙের সমাহার যেমন রয়েছে তেমনি নিত্য নতুন নামেও এবার বাচ্ছাদের অনেক আইটেমের কাপড় রয়েছে । এবার ফুলবাড়ী বাজারে ক্রেতাদের মধ্যে তরুন-তরুনী ও মহিলাদের ভিড়ই বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে । বিশেষ করে স্কুল কলেজ বন্ধ থাকায় তরুনীরা দল বেধে দোকানগুলোতে ভিড় করছে ।
তবে সব কিছুকে ছাড়িয়ে এবার বাহুবলী, কাটাপ্পাসহ বিভিন্ন নামে ভারতীয় পোশাকে জয়জয়কার। তবে নাম যেমন বাহারী দামও তেমনী বেশি হওয়ায় এই সব পোশাক সব ধরণের ক্রেতা কিনতে পারছেন না বলে ক্রেতাদের অভিমত । ১ বছরের শিশু থেকে শুরু করে ১২/১৪ বছরের বাচ্চাদের ১ সেট পোশাক বিক্রি হচ্ছে ৭’শ থেকে ৪ হাজার টাকা পর্যন্ত।
এদিকে কয়েকজন পোষাক ব্যবসায়ী জানান, শুধু ভারতীয় পোশাক বিক্রি বেশী বিধায় সব ধরণের পোষাকে ভারতীয় নায়িকাদের নামের  স্টিকার লাগিয়ে বিক্রি করা হচ্ছে। পাঞ্জাবীর দোকানগুলোতে পাঞ্জাবীর পাশাপাশি ট্রাউজার ও চুড়িদার পায়জামা বিক্রি হচ্ছে বেশি। এবার পাঞ্জাবীর বাজারে সুতি পাঞ্জাবীর চাহিদাই বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। পাঞ্জাবীর মধ্যে মোদি পাঞ্জাবী, পুষ্পকলি, জিপসী, অক্টপাস, মাসাককালী প্রভৃতির চাহিদা রয়েছে। পাঞ্জবীর বাজারেও একই অবস্থা দাম বেশি হওয়ায় ফ্যাসন পাঞ্জাবী ও রেডিমেট ফ্যাসন পোষাকের বিক্রি কম হচ্ছে। শুধু ভারতীয় আইটেমের পোষাক দিতেই তারা হিমসিম খাচ্ছেন বলে জানান। এবার মোদি পাঞ্জাবী ১৬শ হেকে ৩ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাঞ্জাবী নিম্নে ৭’শ থেকে উপরে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে।
ফুলবাড়ী পৌর বাজারে অভিজাত কাপড় ব্যবসায়ী নেকসাস ফ্যাশানের স্বত্বাধীকারি শিবলী সাদিক বলেন, দেরিতে হলেও ফুলবাড়ীতে ঈদের বাজার ক্রমেই  জমে উঠছে। ক্রেতারা নেড়ে চেড়ে দেখছেন এবং তুলনা মূলকভাবে সবরকম কাপড়ই কিনছেন। টুম্পা মনি নামে একজন ক্রেতা জানান দাম বেশি হওয়ার জন্য পছন্দ হওয়া সত্ত্বেও মনের মত পোশাক কেনা যাচ্ছে না। সাধ্যের মধ্যে একটু কম দামে জামা কিনেই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে।
ফুলবাড়ী পৌর বাজারের প্রণকেন্দ্র নীমতলা মোড়ে অভিজাত শপিংমল মন্ত্রী মার্কেটে বিভিন্ন ধরনের দোকান থাকায় এখানে অনেকেই ভিড় করছে। কারণ এখানে একসাথে কাপড়, কসমেটিক, মোবাই এবং ইলেকট্রনিক্স পণ্যর বেশ দোকান রয়েছে।
ফুলবাড়ী পৌর বাজারে রয়েছে অনেক টেইলার্স তাদের দোকন গুলোতে এখনো ভিড় পরিলক্ষিত হচ্ছে। তবে একটি টেইলার্স সূত্রে জানা গেছে গত বছর এই সময় অর্ডার নেয়া বন্ধ হলেও এবার  এখন  পর্যন্ত অর্ডার নেওয়া চলছে। শাড়ী কাপড়ের দোকানের মধ্যে রমনী শাড়ী ঘর, মনেরেখ শাড়ী ঘর, সুলভ বস্ত্রালয়, লাকী বস্ত্রালয়, বধু সাজ ঘর, নেকসাস ফ্যাশান এই দোকান গুলোতে বেশি ক্রেতার ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে ।
ক্রেতাদেরকে আক্ষেপ করে বলতে শোনা গেছে এবার সব কাপড়ের দাম বেশি, কেনার সাধ্য নেই। বিক্রেতারা বলছেন পাইকারীর মোকামেই বেশি দামে এবার ঈদ মার্কেটের কেনাকাটা করতে হয়েছে। তাই আমাদের কিছু করার নেই। নূন্যতম লাভেই আমরা বেচা-বিক্রি করার চেষ্টা করছি। কম বেশি সকল কেনাকাটা শেষে মেয়েরা ছুটছে তাদের রুপ চর্চার জন্য ফুলবাড়ীর সুনামধন্য বিবিয়ানা, শাহানাজ, ফেমিনা, ওমেন্স ওর্য়াল্ড বিউটি পার্লার গুলোতে। এদিকে ফুলবাড়ী বাজারে ছেলেদের রুপ চর্চার জন্য জেন্টস পার্লার রয়েছে। সেখানেও ভীড় করছে ছেলেরা।
অপরদিকে বিভিন্ন প্রতিকুলতা কেটে অনেকেই ঈদের কেনা কাটা করলেও সমস্যায় পড়েছে নি বিত্ত ও মধ্য আয়ের পরিবারের লোকজন।

পুরোনো সংবাদ

দিনাজপুর 6312001652944012057

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item