সৈয়দপুরে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা ॥ স্বামী গ্রেপ্তার

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: 

 নীলফামারীর সৈয়দপুরে গৃহবধূ তিন সন্তানের জননী আকলিমার (২৫) লাশ উদ্ধারের ঘটনায় একটি হত্যা মামলা করা  হয়েছে। আজ রবিবার আকলিমার মা মোছা. মমতাজ বেগম (৬০) বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে সৈয়দপুর থানায় ওই মামলাটি দায়ের করেন।

 এদিকে, গৃহবধূর হত্যার ঘটনায় সন্দিগ্ধ আসামী হিসেবে তাঁর স্বামী মো. শরিফুল  ইসলামকে (৩০) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে (শরিফুল) গতকাল শনিবার (২২ আগস্ট)  দুপুর সাড়ে ১২টায় দিনাজপুরের পাবর্তীপুর উপজেলা হাবড়া রসুলপুর এলাকার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল রবিবার গ্রেপ্তারকৃত শরিফুল ইসলামকে নীলফামারী আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। 

 এছাড়াও গৃহবধূর আকলিমার তিন ভাই যথাক্রমে হাবিব, মাসুদ এবং রুবেলকেও ঘটনার বিষয়ে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল রবিবার দুপুরে পরিবার সদস্যদের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে। 

 সৈয়দপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আতাউর রহমান  গৃহবধূ আকলিমার লাশ উদ্ধারের ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, হত্যা মামলাটি তদন্তের জন্য সৈয়দপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সাহিদুর রহমানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

 প্রসঙ্গত, নীলফামারীরসৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের কিসামত কামারপুকুর সরকারপাড়ার মৃত. আবেদ আলীর মেয়ে আকলিমার (২৫) লাশ গত শনিবার (২২ আগস্ট) উদ্ধার করা হয়। তাঁর বাবার বাড়ির অদূরে কামারপুকুর ইউনিয়নের স্বাদু পানি মৎস্য গবেষণা উপকেন্দ্রের পিছনের বালাডাঙ্গার একটি মাঠের মধ্যে ১১ হাজার কেভির বৈদ্যূতিক খুঁটির নিচে লাশটি পড়েছিল। সৈয়দপুর থানা পুলিশ লোকমুখে খবর পেয়ে সেখান থেকে লাশটি উদ্ধার করেন। তাঁর স্বামীর মো. শরিফুল ইসলাম। সে দিনাজপুরের পাবর্তীপুর উপজেলার হাবড়া রসুলপুর এলাকার আনিছ্রু রহমানের ছেলে। গত  ২০১৪ সালের আকলিমা ও শরিফুলের বিয়ে হয় তাঁর। ওই দম্পতির এক ছেলে এবং দুই মেয়ে সন্তান রয়েছে। 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 4048013619841112632

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item