পঞ্চগড়ে মাদ্রাসা ভবনে টমেটোর আড়ৎ ব্যবসা


সাইদুজ্জামান রেজা, পঞ্চগড়:

করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ সারাদেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ব্যতিক্রম নয় পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাড়িভাসা ইউনিয়নের দারুচ্ছুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসাটিও। তবে মাদ্রাসা বন্ধ থাকার সুযোগটি কাজে লাগিয়ে শ্রেণি কক্ষ গুলো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছে মাদ্রাসা সুপার ও পরিচালনা পর্ষদ। 
সুপার মোহাম্মদ আবুল হাসেম ও ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হেলাল উদ্দীনের যোগসাজশে মাদ্রাসাটি এখন টমেটো ব্যবসার আড়ৎ হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মাদ্রাসার শ্রেণি কক্ষ গুলো দখল করে টমেটো গুদামজাত করে রেখেছে অজ্ঞাত কেউ। 
স্থানীয়রা বলছেন, মাদ্রাসার সুপার ও সভাপতি হেলাল উদ্দীন প্রভাব খাটিয়ে টমেটোর আড়ৎ হিসেবে ব্যবহার করছে মাদ্রাসার কক্ষ গুলো। তবে সভাপতি হেলাল উদ্দীন বলেন, এ বিষয়ে মাদ্রাসার সুপার ভালো জানেন।
এদিকে মাদ্রাসার সুপার মোহাম্মাদ আবুল হাসেমকে মুঠো ফোনে বারবার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম প্রামাণিক বলেন, মাদ্রাসা বন্ধ থাকার সুযোগ কাজে লাগিয়ে শ্রেণি কক্ষ গুলো ব্যবসার কাজে ব্যবহার নিয়ম বহির্ভুত। এমনটা হয়ে থাকলে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
পঞ্চগড় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গোলাম রব্বানী বলেন, মাদ্রাসা কক্ষে টমেটো গুদামজাত করার উপযুক্ত তথ্য প্রমাণ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

পুরোনো সংবাদ

শিক্ষা-শিক্ষাঙ্গন 4860593665725794379

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item