নীলফামারীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে ২১ জন॥ নিয়ম মানছে না অনেকে

নীলফামারী প্রতিনিধি ১৭ মার্চ॥ নীলফামারীতে ১৬ মার্চ পর্যন্ত দেশে ফেরা আরো ২১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। পহেলা মার্চ পর্যন্ত দেশে ফেরা ৪৪ জনের হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হয়েছে ইতিমধ্যে। তারা সকলেই সুস্থ্য আছেন।
আজ মঙ্গলবার(১৭ মার্চ/২০২০) জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে, জেলায় ১৭ মার্চ পর্যন্ত দেশে ফেরা ২১ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এর মধ্যে ডোমারে ৫জন, ডিমলায় ৬জন, সৈয়দপুরে ২ জন এবং জেলা সদরে ৮ জন। তারা সকলে স্বাস্থ্য বিভাগের নজরদারীতে আছেন। ওই ২১ জনের মধ্যে সিঙ্গাপুর থেকে ৪ জন, অস্ট্রেলিয়া থেকে ১ জন, কাতার থেকে ১ জন, মালোয়েশিয়া থেকে ৫ জন, ইতালী থেকে ২জন, জার্মানী থেকে ২জন, চীন থেকে ১জন, ভারত থেকে ৩জন ও ফ্রান্স থেকে ২জন রয়েছেন।
এলাকাবাসীর অভিযোগ হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা অনেকে নিয়ম মানছেন না। ঘরের মধ্যে থাকার কথা থাকলেও অনেকে কোন কোন কাজের প্রকাশ্যে চলাফেরা করছেন। তাদের মধ্যে অনেককে জনবহুল এলাকা হাটবজারেও দেখা গেছে।
জেলার ডোমার পৌর সভার প্যানেল মেয়র এনায়েত হোসেন নয়ন বলেন, অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ডোমার পৌরসভার এক ব্যক্তি বাড়িতে ফিরেছেন গত ১৩ মার্চ। তার হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা থাকলেও প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। গত ১৫ মার্চ অনুষ্ঠিত একটি পাঠাগারের ভোট দিতেও এসেছিলেন তিনি। এতে করে স্থানীয় জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। স্বাস্থ্য বিভাগ এবং প্রশাসনের নজরদারির অভাবে এমনটা ঘটছে বলে দাবি করেন তিনি।
এ বিষয়ে ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বলেন, হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা কেউ বাহিরে ঘোরাফেরা করছেন এমন তথ্য আমাদের এখনও জানায়নি। খবর পেলে আমরা দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
সিভিল সার্জন ডাঃ রনজিৎ কুমার বর্মন বলেন, জেলায় নতুন করে আসা আরো ২১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যাক্তিরা বাইরে ঘোরাফেরা করছেন অভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, এমন অভিযোগ এর আগে পাইনি। বিষয়টি আমরা গুরুত্ব সহকারে খোঁজ নিয়ে দেখছি। সত্যতা পেলে জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। #

পুরোনো সংবাদ

হাইলাইটস 7012901939725765096

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item