সৈয়দপুরে রেলওয়ে জমিতে বসবাসকারীদের উচ্ছেদ বন্ধের দাবিতে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন

তোফাজ্জল হোসেন লুতু,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:
 নীলফামারীর সৈয়দপুরে রেলওয়ের জমিতে বসবাসকারীদের উচ্ছেদ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে।
আজ (মঙ্গলবার) সৈয়দপুর পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের হাওয়ালদারপাড়া এলাকায় রেলওয়ে জমিতে বসবাসকারী বাসিন্দারা ওই মানববন্ধন কর্মসূচি করেছেন। শহরের বঙ্গবন্ধু চত্বর পাঁচমাথা মোড়ে বিশাল ওই মানববন্ধন করা হয়।
বেলা ৩ টায় শুরু হয় মানববন্ধন। মানববন্ধনে অংশকারীরা “উচ্ছেদ চাই না, বন্দোবস্ত চাই। “আমরা বাস্তুহারা, মাথা গোঁজার ঠাঁই চাই, পরিবার পরিজন নিয়ে বাঁচতে চাই’ প্রভূতি দাবি সম্বলিত শ্লোগান লেখা পোষ্টার নিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেয়। বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে উল্লিখিত এলাকায় রেলওয়ের জমিতে বসবাসকারী বিভিন্ন বয়সী বিপুল সংখ্যক নারী পুরুষ অংশ নেন। অনেক পরিবারের নারী সদস্যরা কোলে শিশু সন্তানকে নিয়েও মানববন্ধনে উপস্থিত হন। এ সময় তাদের চোখে মুখে ছিল উচ্ছেদ আতঙ্ক পরিলক্ষিত হয়েছে।  রেলওয়ের জমিতে বসবাসকারী পরিবারগুলোর অনেকে নারী সদস্য কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এ সময় মানববন্ধনে কয়েকজন চলতি এসএসসি পরীক্ষার্থীকেও দেখা যায়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক এসএসসি পরীক্ষার্থী  বলেন, গত ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে তাঁর এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়েছে।  গত কয়েক দিন যাবৎ তাদের পরিবারে উচ্ছেদ আতঙ্ক বিরাজ করছে। আর রেলওয়ে  উচ্ছেদ আতঙ্কের কারণে গত কয়েক দিন যাবৎ তিনি ঠিকভাবে পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে পারছিলেন না। আজও তাঁর এসএসসি পরীক্ষা ছিল।  মানববন্ধন চলাকালে সেখানে রেলওয়ের আজ থেকে শুরু হওয়া উচ্ছেদ অভিযান বন্ধের দাবি জানিয়ে বক্তব্য দেন জাতীয় ছাত্র সমাজ কেন্দ্রীয় সভাপতি ফয়সাল দিদার দিপু, সমাজসেবক পিকে সাইদুল ইসলাম, মো. সাঈদ প্রমূখ। এ সময় বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, রেলওয়ে অপ্রয়োজনীয় জমিতে দীর্ঘদিন যাবৎ সব শ্রেণী-পেশার গরীব,দুস্থ  অসহায় মানুষ পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছেন। এলাকার বসবাসকারী এ সব মানুষ সৈয়দপুর পৌরসভাকে  নিয়মিত পৌরকর পরিশোধ করছেন। অথচ রেলওয়ের প্রয়োজন  না থাকা সত্ত্বেও তাদের উচ্ছেদের পরিকল্পনা করা হচ্ছে।  মানববন্ধনে বক্তারা  রেলওয়ের  পরিত্যক্ত এ সব জমি বসবাসকারীতে সহজ শর্তে বন্দোবস্ত  কিংবা লিজ দেওয়ার দাবি জানান। সেই সঙ্গে বক্তারা রেলওয়ে উচ্ছেদ অভিযান বন্ধের দাবি করেন।  অন্যথায় তারা জীবন দিয়ে হলেও উচ্ছেদ অভিযান ঠেকাবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বাংলাদেশ রেলওয়ের পাকশী ভূ-সম্প্রতি বিভাগ থেকে  সৈয়দপুর শহরের বেশ কিছু এলাকায় রেলওয়ে জমিতে গড়ে উঠা বাসা-বাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চিহিৃত করে লাল কালি দিয়ে ক্রস চিহৃ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে চিহিৃত বাসাবাড়ি,ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সরিয়ে নিতে গত কয়েক দিন বেশ কয়েকবার এলাকায় মাইকিংও করা হয়।  আজ ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে রেলওয়ে ওই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করার কথা রয়েছে। আর এতে রেলওয়ে জমিতে বসবাসকারী মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। আতঙ্কিত মানুষ মঙ্গলবার শহরের বঙ্গবন্ধু চত্বরে পাঁচ মাথা মোড়ে মানববন্ধন করে উচ্ছেদ অভিযান বন্ধের দাবি জানান।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 2160853412582625511

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item