বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক

ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়, নীলফামারী ১৯ জুলাই॥
সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী (বিএসএফ) বাহিনীর অধিনায়ক পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার  সকাল ৯টা হতে দুপুর সোয়া একটা পর্যন্ত নীলফামারী ৫৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের সীমান্ত পিলার ৭৭৮/৩-এস এলাকার অমরখানা নামক স্থানে এই পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত পতাকা বৈঠকে বিজিবি’র পক্ষে নেতৃত্ব দেন ৫৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল কাজী আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে ১৬ সদস্য এবং ভারতের ৬৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট শ্রী অনিল কুমার শিং এর ২০ জন প্রতিনিধি অংশ নেন।
পতাকা বৈঠকে পরবর্তীতে সীমান্তে ১৫০ গজের মধ্যে একসারি বিশিষ্ট তাঁরকাটার বেড়া নির্মাণের বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হয়। বৈঠকের আলোচনার পর বিজিবি-বিএসএফ এর মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়ন, উভয় দেশের চোরাকারবারীরা যাতে সীমান্ত দিয়ে মাদক, গরুসহ অন্যান্য দ্রব্যাদি অবৈধভাবে চোরাচালান করতে না পারে এবং বিএসএফ কর্তৃক বাংলাদেশী নাগরিকের উপর গুলি বর্ষণ না করার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিএসএফ কমান্ড্যান্টকে অনুরোধ করেন ৫৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল কাজী আবুল কালাম আজাদ। প্রতি উত্তরে বিএসএফ এর কমান্ড্যান্ট সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সকল প্রকার সীমান্ত অপরাধ দমনে পারস্পারিক সহযোগিতা ও সমন্বয় বজায় রাখার ব্যাপারে একমত পোষন করেন। উক্ত পতাকা বৈঠকে অন্যান্যদের মধ্যে ৫৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের  উপ-অধিনায়ক, দুইজন কোম্পানী কমান্ডার, দুইজন বিওপি কমান্ডার ও ১০ জন অন্যান্য পদবীর সৈনিক সহ ১৬জন  এবং ভারতীয় বিএসএফ এর পক্ষে ১ জন সেকেন্ড ইন কমান্ড, ১ জন ষ্টাফ অফিসার, ২ জন কোম্পানী কমান্ডার, ১ জন ক্যাম্প কমান্ডার, ৫ জন সার্ভেয়ার ও ৯ জন অন্যান্য পদবীর সৈনিক সহ ২০ জন প্রতিনিধি অংশগ্রহণ নেয় । উক্ত পতাকা বৈঠক শান্তিপূর্ণ ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে শেষ হয়।

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item