ধর্ষক নাহিদ ফারাজীকে হণ্য হয়ে খুঁজছে পুলিশ


নির্ণয়,নীলফামারী॥
নায়ক মার্কা চেহারাকে পুঁজি করে অনেক মেয়ের সর্বনাশ করলেও বার বার পার পেয়ে গেছে নীলফামারীর লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের দুবাছুড়ি (বগুড়াপাড়া) গ্রামের নাহিদ ফারাজী(৩২)। এবার সে তারই গ্রামের এক ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রীকে ফাঁদে ফেলে ধর্ষন করেছে। মেয়েটি এখন ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এই ঘটনায় মামলা হলেও মামলার আসামী নাহিদ ফারাজী রয়েছে ধরা ছোয়ার বাহিরে। পুলিশ তাকে ধন্য হয়ে খুঁজছে। মামলার প্রায় তিন সপ্তাহেরও বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও নাহিদকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি এখনও পুলিশ।  

এ বিষয়ে আজ সোমবার(১৬ আগষ্ট/২০২১) গ্রামবাসী জানায়, নাহিদ ফারাজী অনেক চতুর। ঘরে স্ত্রী ও সন্তান থাকলেও নায়ক মার্কা চেহারা নিয়ে সে তার স্ত্রী সন্তানের বিষয়টি গোপন রেখে ভয়ভীতি দেখিয়ে অনেক মেয়ের সর্বনাশ করেছে। আমরা তার বিচারের মাধ্যমে ফাঁসী চাই।   

এদিকে ধর্ষনের শিকার ওই ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী গর্ভবতী হয়ে পড়ায় শারীরিক ও মানসিকভাবে নানা জটিলতা দেখা দিয়েছে। ভূক্তভোগী পরিবারটির দাবী ধর্ষকের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় অনবরত হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে চোখেমুখে আতংকের ছাপ এই ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রীটির। যে বয়সে তার  সহপাঠীদের সাথে খেলাধুলায় মেতে থাকবার কথা সেই বয়সে ধর্ষনের শিকার হয়ে এখন  সাত মাসের অন্তসত্ত্বা সে। 

মেয়েটি জানায় সে দুবাছুড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়ে। তারই গ্রামের যুবক নাহিদ ফারাজী তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে সর্বপ্রথম ২০২০ সালের ৩০ ডিসেম্বর ধর্ষন করে। এরপর সেই ভয়ভীতি দেখিয়ে আরও একাধিকবার ধর্ষন করায় সে আজ অন্তসত্ত্বা। তাই সকল ভয় ভীতি উপক্ষো করে বিষয়টি বাবা  মাকে জানায় সে। 

মেয়েটির বাবা, মা ও গ্রামবাসী বিষয়টি  প্রথমে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে অবগত করে। এরপর গ্রামে ডাকা হয় বিচার। বিচার ডাকা হলে রাতের আধারে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায় ধর্ষক। তবে তার বাবা জামাত ফারাজী অর্থের বিনিময়ে ঘটনাটি মিটিয়ে ফেলতে প্রস্তাব দেয়। গ্রামবাসীর দাবি ছিল মেয়েটিকে বিয়ে করে স্ত্রীর মর্যাদা দিতে হবে। ধর্ষক নাহিদ ফারাজীর বাবা এতে রাজি নয়। গ্রামের বিচার ভেঙ্গে যায়। এরপর  মেয়েটির বাবা চলতি বছরের ২৪ জুলাই নীলফামারী থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা হচ্ছে জানতে পেরে স্ত্রী সন্তান সহ ধর্ষক নাহিদ ফারাজী গাঁ-ঢাকা দেয়। 

নীলফামারী সদর থানার ওসি আব্দুর রউপ জানান, মামলাটি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে এবং আসামীকে ধরার চেষ্টা চলছে। তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে যেখানেই আমরা খবর পাচ্ছি সেখানেই ছুটে যাচ্ছি। এর আগে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ ও দিনাজপুরের বীরগঞ্জ পর্যন্ত অভিযান চালানো হয় কিন্তু ধর্ষক নিমিষেই স্থান পরিবর্তন করে ফেলে। তবে আমরা আশা করছি খুব দ্রুত আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো। # 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 6335456149887334736

অনুসরণ করুন

Logo

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item