চিলাহাটিতে ব্রীজ সংস্কারের অভাবে দুই গ্রামের মানুষের চলাচলে বিঘ্ন


এ.আই.পলাশ.চিলাহাটি প্রতিনিধিঃ 

নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার চিলাহাটিতে ব্রীজ সংস্কারের অভাবে দুই গ্রামের মানুষের চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে। এলাকার বানিয়াপাড়া মিলনকুঠির সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন একটি বড় ধরনের ব্রীজ শুধু সংস্কারের অভাবে ১০ বছর যাবত দুই গ্রামের প্রায় ১৫ হাজার মানুষ ব্রীজের নিচ দিয়েই চলাচল করছে। এ ব্যপারে স্থানীয় প্রশাসনের কোন সু-দৃষ্টি নেই বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে। এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে,“এই রাস্তা দিয়ে দুই গ্রামের প্রায় ১৫ হাজারের মতো মানুষ চলাচল করে। দীর্ঘদিন যাবত ধরে এই ব্রীজটি সংস্কারের অভাবে এভাবেই পরে আছে। বর্ষাকালে এই রাস্তা দিয়ে মানুষ যাতায়েত করতেই পারে না। তার থেকে বেশি মুশকিলে পরতে হয় স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের। বর্ষাকালে এই ব্রীজের নিচের চলাচলের রাস্তাটি ডুবে যাওয়ায় বন্ধ হয়ে যায় দুই গ্রামের যাতায়াতের রাস্তা। ইউপি মেম্বার-চেয়ারম্যানকে এই ব্রীজ ঠিক করার কথা বললে তারা বলে এখানে নাকি নতুন ব্রীজ তৈরী হবে, তাই দেরি হচ্ছে। কিন্তু, প্রায় ১০ বছরের মতো পরিতাক্ত অবস্থায় পরে থেকে বর্তমানে ব্রীজটি একটি বিপদের হাতছানি দিচ্ছে। যেকোন মূহুর্তে উক্ত ব্রীজটি ধসে পরে বেশকিছু মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে পারে। পার্শ্ববর্তী দুইটি বড় ধরনের হাট রয়েছে। একটি গোসাইগঞ্জ হাট ও অপরটি বিওপি বাজার হাট। আর এই দুই হাটে যাওয়া-আসার মধ্যে ব্রীজটি পরে। আগে ১০ মিনিটে বিওপি বাজার থেকে গোসাইগঞ্জ বাজার যাওয়া যেত। কিন্তু, বর্তমানে ১০ মিনিটের জায়গায় ৪০ মিনিট লাগে বিপরীত রাস্তা দিয়ে যেতে”। এ ব্যপারে ভোগডাবুরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একরামুল হকের সাথে একাধীকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন না ধরায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 1975236280953139934

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item