নীলফামারী পৌর কাউন্সিলরের উপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন


ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারী॥
নীলফামারী পৌরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কলিম উদ্দিনের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও জড়িতদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার পরিবার।  বুধবার(৪ নবেম্বর/২০২০) দুপুর ১টায় জেলা শহরের সার্কিট হাউজ পাড়াস্থ নিজ বাড়িতে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে পৌরসভার কাউন্সিলর ছাড়াও জেলা পরিষদ সদস্য এবং প্রতিবেশীরা উপস্থিত থেকে ঘটনার প্রতিবাদ জানান। 

এতে বক্তব্য দেন নীলফামারী পৌরসভার প্যানেল মেয়র ঈসা আলী, কাউন্সিলর বাদশা আলমগীর, জেলা পরিষদ সদস্য সাইদুর রহমান, ইসরাত জাহান পল্লবী, নীলফামারী বড় মসজিদের ইমাম খন্দকার আশরাফুল আলম নুরী ও আহত কাউন্সিলরের স্ত্রী ফাতেমা বেগম। 

কাউন্সিলর কলিম উদ্দিন অভিযোগ করেন, ট্রাক চলাচলের অনুপযোগী রাস্তা দিয়ে ইট বালু নেয়া এবং পৌরসভার অনুমোদন ছাড়াই বাড়ি তুলছিলেন এলাকার আকলিমা খাতুন। এসবের প্রতিবাদ করে পৌরসভা থেকে অনুমতি নিয়ে কাজ করার অনুরোধ করেছিলাম আকলিমার পরিবারকে। এতে কর্ণপাত না করে উল্টো আমাকে নানা ভাবে হেনস্তা করা শুরু করে। এরই মধ্যে গত ২৮ অক্টোবর/২০২০ রাতে ডাকবাংলো এলাকা থেকে বাড়ি ফেরার পথে আমাকে আকলিমার ছেলে শরিফ ছুটে এসে আমাকে হত্যার জন্য ধারালোঅস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। এ সময় মাথায় আঘাত না পড়লেও বামহাত কেটে যায়। আমার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে শরিফ সহ আরো কয়েকজন পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করালে আমার হাতে ছয়টি সেলাই দেন চিকিৎসক।  

তিনি অভিযোগ করেন, এ ঘটনায় মামলা হলেও এখনও আসামী গ্রেফতার হয়নি। উল্টো ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহের চেষ্টা করছে হামলাকারীরা।  

কাউন্সিলরের স্ত্রী ফাতেমা বেগম জানান, রাতের আধারে আমার স্বামীকে হত্যার চেষ্টা করা হলো অথচ এখনও আসামীকে গ্রেফতার করা হয়নি। আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। 

নীলফামারী পৌরসভার কাউন্সিলর বাদশা আলমগীর উদ্বেগ জানিয়ে বলেন, আমরা হতাশ। সরকারী আদেশ নিষেধ বাস্তবায়ন করতে গিয়ে আমাদের উপর আক্রমণ চালানো হচ্ছে। এতে করে কি বোঝানো হচ্ছে। দিনরাত মানুষের পাশে থেকে কাজ করেও অন্যায় কাজে সায় না দেওয়ায় হত্যা চেষ্টা করা হচ্ছে। 

আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই এবং দ্রুত আসামী গ্রেফতারের দাবী করছি। 

জেলা পরিষদ সদস্য ইসরাত জাহান পল্লবী বলেন, আমরা জনগণের হয়ে কাজ করছি। অথচ আমরাই হুমকীতে। দু’দিনের মধ্যে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করা না হলে আমরা সকল জনপ্রতিনিধি রাস্তায় নামবো। 

এ বিষয়ে নীলফামারী থানার পরিদর্শক(তদন্ত) মাহমুদ উন নবী জানান, আসামীকে ধরার চেষ্টা করছি আমরা। দ্রুত গ্রেফতার করা সম্ভব হবে। #  


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 6707927400132095307

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item