সৈয়দপুরে এনজিও’র নারীকর্মীকে উত্ত্যক্তের দায়ে যুবকের তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড


তোফাজ্জল হোসেন লুতু,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: 

নীলফামারীর সৈয়দপুরে একটি এনজিও এক নারী কর্মীকে উত্ত্যক্তের দায়ে আলমগীর হোসেন নামের এক যুবককে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। ঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সৈয়দপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. রমিজ আলম ওই দন্ডাদেশ দেন। দন্ডপ্রাপ্ত আলমগীর হোসেন রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের খানাবাড়ী এলাকার মো. সাইফুল ইসলামের ছেলে।

 ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় কর্মরত একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার (এনজিও) মাইক্রোফাইন্যান্স প্রোগ্রামের এক নারীকর্মী। ঘটনার দিন  সকালে ওই নারীকর্মী সংস্থা কর্তৃক নিয়োজিত তাঁর কাজে সৈয়দপুর উপজেলার তিন নম্বর বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নে যান। তিনি সেখানে তাঁর কাজ শেষে সৈয়দপুর শহরে ফিরে আসার প্রাক্কালে বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের লক্ষণপুর বালাপাড়া এলাকায় পৌঁছেন। এ সময় সেখানে আলমগীর হোসেন নামের এক যুবক ওই এনজিও নারীকর্মীকে রাস্তায় একা পেয়ে উত্ত্যক্ত করতে থাকেন। এ সময় ওই নারীকর্মী আর্তচিৎকার করলে আশপাশের  থাকা লোকজন  দ্রুত ছুঁটে গিয়ে ওই যুবককে হাতেনাতে ধরে  আটকে রাখেন। পরে মোবাইলফোনে ঘটনাটি সৈয়দপুর থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়। খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) লক্ষèী নারায়ণ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে  আটক ওই যুবককে পুলিশের সোপর্দ করা হয়। পরে সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে এনজিও’র নারীকর্মীকে উত্ত্যক্তের দায়ে যুবক আলমগীর হোসেনকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সৈয়দপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. রমিজ আলম। দন্ডপ্রাপ্ত আলমগীর হোসেনকে নীলফামারী কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ভ্রাম্যমান আদালতে এক যুবককে তিন মাসের বিশাশ্রম কারাদন্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেন

 সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল হাসনাত খান। 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 5538697962691587638

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item