খুলনাকে হেসেখেলে হারালো সিলেট

অনলাইন ডেস্ক


পয়েন্ট টেবিলে সবার নিচে খুলনা টাইটানস। ঠিক তার উপরে সিলেট সিক্সার্স। পয়েন্ট তালিকার লেজের দুই দলের লড়াইতে শনিবার শেষ হাসি হেসেছে সিলেট। দিনের প্রথম ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনাকে ৫৮ রানে হারিয়েছে অলক কাপালির সিক্সার্স।

সাব্বির রহমান ও আফিফ হোসেনের ব্যাটে ভর করে প্রথমে ৪ উইকেটে ১৯৫ রান করে সিলেট সিক্সার্স। জবাবে ১১ বল বাকি থাকতে ১৩৭ রানেই অলআউট হয়ে যায় খুলনা।

১০ ম্যাচে সিলেটের চতুর্থ জয় এটি। ফলে এক ম্যাচ বেশি খেলে রাজশাহীকে টপকে পাঁচে উঠে গেছে তারা। আর ১০ ম্যাচে অষ্টম হারে তলানির জায়গাটা আরও পোক্ত করল খুলনা।

এদিনও ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিয়ে ইনিংস লম্বা করতে পারেননি জুনায়েদ সিদ্দিকী। স্কোরবোর্ডে ২৭ রান উঠতেই আউট হন তিনি। তার ১১ বলে করা ২০ রানের মধ্যে ছিল চোখ ধাঁধানো চারটি চারের মার।

দুটি ছক্কা মেরে বড় ইনিংস খেলার আভাস দেয়া আল-আমিনও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। ১৬ রান করে সোহেল তানভীরের স্লো ডেলিভারিতে এলবিডব্লিউ হন। চার রানের ব্যবধানে ফেরেন নাজমুল হাসান শান্ত (৩)। মোহাম্মদ নওয়াজের হাতে ক্যাচ দিয়ে অলক কাপালির শিকার হন তিনি।

অন্যদের যাওয়া-আসার মধ্যে ভালো খেলছিলেন ব্রেন্ডন টেলর। কিন্তু জেসন রয়ের অসাধারণ এক ক্যাচে সমাপ্তি ঘটে তার ৪৩ রানের ইনিংসের। ২৩ বল খেলে তিন চার ও একটি ছক্কা মারের জিম্বাবুয়ের এ ব্যাটসম্যান। নাবিল সামাদের বল ভাসিয়ে খেলতে যেয়ে সীমানায় একহাতে দারুণভাবে ক্যাচ নেন রয়। বিপিএলের সেরা ক্যাচগুলোর মধ্যে রয়ের ক্যাচটিও থাকতে হয়তো!

দলের বিপদে হাল ধরতে পারেননি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। ইবাদত হোসেনের বলে রয়ের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। খুলনার অধিনায়কের থেকে আসে মাত্র ১১ রান। শেষ দিকে আরিফুল হক ২৪ রান (২১ বলে) ছাড়া আর কেউ উল্লেখ করার মতো স্কোর করতে পারেননি।

সিলেটের হয়ে নাবিল সামাদ তিনটি ও তাসকিন আহমেদ দুটি উইকেট নেন।

পুরোনো সংবাদ

খেলাধুলা 2037587183373928945

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item