এমপি লিটন হত্যায় গ্রেপ্তার কাদের'র বিরুদ্ধে চার্জসিট

নুরুল আলম ডাকুয়া, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সরকার দলীয় এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে গ্রেপ্তারকৃত একই আসনের সাবেক মহাজোট সরকারের (জাপা) এমপি কর্নেল (অব:) ডা. আব্দুল কাদের খাঁনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে একটি মামলায় আদালতে চাজর্সিট দাখিল করেছে পুলিশ।
            রবিবার রাতে সুন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ-আতিয়ার রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গত বৃহস্পতিবার (৬ এপ্রিল মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা- কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ- মোক্তারুল আলম একমাত্র আসামী কারাগারে থাকা সাবেক এমপি কর্ণেল (অব:) ডা: আব্দুল কাদের খাঁনের বিরুদ্ধে গাইবান্ধা বিজ্ঞ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো.শহীদুল্লহর আদালতে চার্জসীট দাখিল করলেও এখনো তা শুনানী হয়নি। তিনি আরো বলেন, এমপি লিটন হত্যাকা-ের মুল পরিকল্পনাকারী, অর্থ ও অস্ত্রের যোগানদাতা হিসেবে গত ২১ ফেব্রুয়ারী বগুড়ার রহমানগড় এলাকায় অবস্থিত গরীবশাহ্ ক্লিনিক সংযুক্ত নিজ বাড়ি থেকে আব্দুল কাদের খাঁনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরদিন (২২ ফেব্রুয়ারী) তাকে আদালতে হাজির করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমা- চেয়ে আবেদন করা হলে বিজ্ঞ আদালত ১০ দিনের রিমা- মঞ্জুর করেন। রিমা-ে দেয়া কাদের খাঁনের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে উপজেলার ছাপড়হাটী ইউনিয়নের পশ্চিম ছাপরহাটী খাঁনপাড়াস্থ তার গ্রামের বাড়ির উঠানে মাটির নীচ থেকে বিস্তুল, ম্যাগজিন ও ৬ রাউ- গুলি উদ্ধার করা হয়। রিমা-ে ১০দিন পূর্তির আগেই চতুর্থ দিনে বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে এমপি লিটন হত্যার দায় স্বীকার করেন আব্দুল কাদের খাঁন। এমপি লিটন হত্যা ছাড়াও থানার নিরস্ত্র পুলিশ পরিদর্শক (ওসি- তদন্ত)- আবু হায়দার মোঃ আশরাফুজ্জামান বাদী হয়ে আব্দুল কাদের খাঁনকে একমাত্র আসামী করে অস্ত্র আইনে একটি মামলা করেন। সেই মামলার আই ও কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ- মোক্তারুল আলম বিজ্ঞ আদালতে চার্জসীট দাখিল করেছেন।
উল্লেখ্য, গেল বছরের শেষ দিন (৩১ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের উত্তর সাহবাজ গ্রামের (মাস্টার পাড়াস্থ) নিজ বাসভবনে আততায়ীদের ছোড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিহত হন এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। এ ঘটনায় পরদিন (১ডিসেম্বর) এমপি লিটনের বড় বোন ফাহমিদা বুলবুল কাকলী বাদী হয়ে অজ্ঞাত নামা ৪ থকে ৫ জনকে আসামী করে  সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে।

পুরোনো সংবাদ

প্রধান খবর 1048896477773588695

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item