সৈয়দপুরে বাড়ির তালা ভেঙে চার ভড়ি স্বর্ণালংকারসহ নগদ লক্ষাধিক টাকা চুরি


নির্ণয়,নীলফামারী-
নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় বাড়ির তালা ভেঙে চার ভড়ি স্বর্ণালংকার ও লক্ষাধিক টাকা চুরি চোর। মঙ্গলবার(৩১ আগষ্ট/২০২১) রাত ৮টার দিকে উপজেলা শহরের মুন্সিপাড়া জোড়াপুকুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে থানায় এখনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। 

জানা যায়, শহরের মেঘনা কনফেকশনারীর মালিক মোঃ আরমানের ভগ্নিপতি মুন্সিপাড়া জোড়াপুকুর এলাকার বাসিন্দা মেরাজের বাসায় বিকাল থেকেই কোন লোকজন ছিলনা। এই সুযোগে চোর সন্ধায় বাড়ির দেয়াল টপকে ভিতরে ঢুকে বারান্দার গ্রিল ও ঘরের দরজার তালা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে। পরে আলমিরার তালা ভেঙে নগদ ১ লাখ ১৬ হাজার টাকা ও ৪ ভড়ি স্বর্ণালংকার নিয়ে সটকে পড়ে। রাত ৮ টার দিকে বাড়ির লোকজন বাইরে থেকে ফিরে সীমানা প্রাচীরের প্রধান গেট খুলে ঢুকতেই দেখে গ্রিলের দরজা ও ঘরের দরজা খোলা। কাছে গেলে দরজার তালাগুলো ভাঙা অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে। ঘরের ভিতরে ঢুকে চোখে পড়ে আলমিরার তছনছ অবস্থা। এতে নিশ্চিত হয় চুরির ঘটনা। পরে এ ব্যাপারে আশে পাশে খোজ নিয়েও চুরি যাওয়া টাকা ও স্বর্ণালংকারের কোন হদিস পাওয়া যায়নি। সন্ধ্যা রাতেই জনবহুল ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় এমন চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এলাকারই কেউ এ চুরির সাথে জড়িত বলে এলাকাবাসী জল্পনা করছে। 

এ ব্যাপারে মেরাজ আহমেদ বলেন, পরিকল্পিতভাবেই এ চুরি সংঘটিত হয়েছে। আশেপাশের কেউ এ কাজ করেছে। আমার সঞ্চিত ১ লাখ ১৬ হাজার টাকা ও স্ত্রীর ৪ ভড়ি বিভিন্ন স্বর্ণালংকার চুরি হওয়ায় চরম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। পুলিশকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। অনেক খোঁজ খবর করেও কোন সুরাহা পায়নি। তাই রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। 

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসনাত খান বলেন, চুরির বিষয়ে কোন অভিযোগ করা হয়নি। বাড়ির মালিক লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত করে চুরি যাওয়া টাকা ও স্বর্ণালংকার উদ্ধার এবং এর সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা করবে। # 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 4908583928015169786

অনুসরণ করুন

Logo

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item