দেবীগঞ্জে বৃষ্টির অভাবে কৃত্রিম পদ্ধতিতে সেচ দিয়ে ধান রোপণ


মোঃ মোজাহারুল আলম জিন্নাহ্ (রানা),সিনিয়র রিপোর্টার-

দেবীগঞ্জ উপজেলায় পুরোদমে শুরু হয়েছে আমন ধানের চারা রোপণের কাজ। বৃষ্টির অভাবে ধান রোপণ করতে একটু দেরি হচ্ছে। অনান্য বছর বৃষ্টির পানিতে ধান রোপণ করতে পারেলও  এ বছর তা ভিন্ন। দহলায় চোখ রাখলে দেখা যায় ইরি মৌসুমে যেভাবে কৃষকেরা সেলো মেশিন বা মটর দিয়ে পানির ব্যবস্থা করে ধান রোপণ করতেন। ঠিক সে ভাবেই আমান ধান রোপণ করছেন বৃষ্টি না হওয়াতে। সাধারণত জুন -জুলাইয়ে উত্তরাঞ্চলে ধানের রোয়া রোপণ করা হয় কিন্তু এ বছর বৃষ্টি না হওয়ায় রোয়া রোপণ করতেছে আগস্ট মাসে তাও আবার কৃত্রিম উপায়ে। ক্ষেতে পানি দিতে ঘন্টায়  ৮০-৯০ টাকা খরচ হচ্ছে। 

উপজেলার বিভিন্ন কৃষকের সাথে কথা বলে জানাযায়, এবছর বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টি না হওয়ায় বিঘা প্রতি জমিতে বেশী খরচ হচ্ছে ১ থেকে দেড় হাজার টাকা। আমনের চারা রোপণের জন্য দরকার প্রচুর বৃষ্টিপাতের। কারণ দেবীগঞ্জের জমি এমনিতেই উচু। এ সময়ের বৃষ্টিপাত না হওয়ায় দেবীগঞ্জের কৃষকরা মনে করে তাদের জন্য অভিশাপ।

পুরুষ শ্রমিকের পাশাপাশি নারী শ্রমিকরাও জমিতে লেগে পড়েছে রোপা লাগানোর কাজে। শ্রমিকের চাহিদা থাকায় পুরুষ ও নারী শ্রমিকের মুজুরী প্রায় সমান। 

দেবীগঞ্জে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মোস্তাক আহম্মেদ জানান, প্রায় ২৪ হাজার হেক্টর জমিতে আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে দেবীগঞ্জে।#


পুরোনো সংবাদ

পঞ্চগড় 960130476605424885

অনুসরণ করুন

Logo

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item