নীলফামারীতে ফের বাড়ছে সংক্রমন॥ করোনায় নতুন করে আক্রান্ত ২৭ জন


নির্ণয়,নীলফামারী॥
লকডাউন শিথিল হবার পর কয়েকদিনে জেলায় করোনার সংক্রমন করতে শুরু করেই ছিলো। কিন্তু হঠাৎ করে ঘরে ঘরে আবার জ্বর, গলা ব্যথা, সর্দি ও পাতলা পায়খানা দেখা দেয়ায় ধীরে ধীরে ফের নীলফামারীতে করোনার সংক্রমন বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন করে ২৭ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। তবে কোনো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায় নি। এছাড়া জেলায় ১ জন ডেঙ্গু রোগীও শনাক্ত করা হয়।

আজ মঙ্গলবার(১৭ আগষ্ট/২০২১) বিষয়টি নিশ্চিত করেন নীলফামারী সিভিল সার্জন ডাঃ জাহাঙ্গীর কবির।

জেলা করোনা কন্ট্রোল রুমের সূত্র মতে, গত ৮দিন ধরে জেলায় করোনা শনাক্তের হার কমে গেলেও হঠাৎ করে সংক্রমনের সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। গত ৮ দিন গড়ে জেলায় ৩ থেকে ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত ছিল। এর আগে ৮০ থেকে ৯০ জন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছিল। সেটি লকডাউনে কমে এসে ৫০ থেকে ৬০ জনে হয়। লকডাউন শিথিল হবার পর মানুষজনের চলাচল বৃদ্ধি পাওয়ায় করোনার উপসর্গ বেড়ে গেছে। ২৪ ঘন্টায় ২০২ নমুনায় ২৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। এরমধ্যে জেলা সদরে ৯ জন, সৈয়দপুর উপজেলায় ১২, জলঢাকা উপজেলায় ৩ জন, ডোমার উপজেলায় ২ জন ও কিশোরীগঞ্জ উপজেলায় ১ জন রয়েছে। এতে জেলায় সংক্রমনে গড়ে হার দাড়িয়েছে ১৩.৩৭ শতাংশ। অপরদিকে ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন ৩০ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪৯১ জন। এর মধ্যে হাসপাতালে ২২ জন, হোম আইসোলেশনে ৪৬৮ জন ও রংপুর করোনা ডেডিকেটেড মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে ২৩ জন।

উল্লেখ্য যে, করোনায় গত ৯ দিনে জেলার ১ হাজার ৩৫৪ নমুনায় ১৯৫ জন পজেটিভ হন। সুস্থ্য হয়েছেন ২৯৬ জন। জেলার সংক্রমনের হার গড়ে ১৪.৪০ শতাংশ। এছাড়া জেলায় ২০২০ সালে এপ্রিল মাস থেকে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ১৩০ জন, সুস্থ্য হয়েছেন ৩ হাজার ৫৬৯ জন ও মৃত্যুবরণ করেন ৭০ জন। চলতি আগষ্ট মাসে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত জুলাই মাসে ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 7108560882667294168

অনুসরণ করুন

Logo

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item