নীলফামারীতে ২৪ ঘন্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত্যু


নির্ণয়,নীলফামারী॥
নীলফামারীতে করোনায়  মৃত্যু বেড়েই চলেছে। সেই সঙ্গে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষজন। এ ছাড়া করোনার উপসর্গ নিয়ে শতশত মানুষজন গ্রামে গ্রামে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নীলফামারী জেনারেল হাসপাতাল ৩ জন ও সৈয়দপুর উপজেলা হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ১ জন সহ গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪ জনের মৃত্যু হয়। গতকাল ঈদের দিন বুধবার সকাল ৮টা থেকে আজ বৃহ¯পতিবার (২২ জুলাই/২০২১) সকাল ৮টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়েছে। 

এর আগে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতাল ও সৈয়দপুর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত দুইদিনে আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

আজ বৃহ¯পতিবার সকালে নীলফামারী সিভিল সার্জন ডাঃ জাহাঙ্গীর কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান নতুন করে মারা যাওয়া ৪ জনের মধ্যে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সৈয়দপুর উপজেলার বাঙ্গালীপাড়া ইউনিয়নের নিজপাড়া গ্রামের জাহানারা বেগম (৭২), ডোমার উপজেলার চিকনমাটি বসতপাড়া গ্রামের হামিদুল ইসলাম (৬৫), একই উপজেলার পাঙ্গামটুকপুর মিস্ত্রিপাড়া গ্রামের সুধীর চন্দ্র রায় (৭৫) ও সৈয়দপুর উপজেলা ১০০ শষ্যা হাসপাতালে করোনা ইউনিটের চিকিৎসাধীন উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের পাঠানপাড়া গ্রামের বেলাল হোসেন (৬০)। এ ছাড়া রংপুর করোনা ডেডিকেটেট হাসপাতালে নীলফামারী জলঢাকা উপজেলার বালাগ্রাম ইউনিয়নের আব্দুল গফুর (৮০) উপসর্গ নিয়ে মারা যান গত ১৩ জুলাই। তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় প্রেরন করা হলে তার রির্পোগ গতকাল পাওয়া গেছে তিনি করোনা আক্রান্ত ছিল।

স্বাস্থ্য বিভাগের সুত্র মতে গত বছরের (২০২০) ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেলায় করোনায় মোট মৃত্যুর বরন করেছিলেন ২৬ জন। চলতি বছরের ৬ মাস ২২দিনে করোনায় মারা গেলেন ৩৪ জন। এরমধ্যে  চলতি জুলাই মাসেই  ২২ তারিখ পর্যন্ত মারা গেলেন ২৫ জন। 

সংশ্লিষ্ঠ সুত্র মতে গত ২৪ ঘন্টায় ১৫ নমুনায় নীলফামারী জেলায় নতুন করে আরও ৬ জন ও এর আগের দিন ২৯ সহ ৩৫ জন করোনা পজেটিভ হন। অপর দিকে গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন ১৯ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে ৫৫৩ জন। এরমধ্যে জেলা সদরের জেনারেল হাসপাতালে ৩৫ জন, নিজবাড়িতে ২৪৩, সৈয়দপুর হাসপাতালে ১১ জন, নিজবাড়িতে ১২০, ডোমার হাসপাতালে ২ জন, নিজবাড়িতে ৩৩, ডিমলা হাসপাতালে ১ জন নিজবাড়িতে ৩, জলঢাকা উপজেলায় নিজবাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছে ৬৬ জন,কিশোরীগঞ্জ উপজেলার নিজবাড়িতে ২৩ জন ও রংপুর মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে ১৬ জন।। করোনার শুরু থেকে এ পর্যন্ত এ জেলায় আক্রান্ত হন ২ হাজার ৯৪৩ জন। এর মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ২ হাজার ৩৩০ জন। সর্বমোট মৃত্যু বরন করেছেন ৬০ জন। 

এদিকে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিযোগ এসেছে করোনা উপসর্গ নিয়ে শতশত মানুষজন গ্রাম থেকে শহরে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তারা কোনভাবেই নমুনা পরীক্ষা করাচ্ছেন না। এ ছাড়া গত এক সপ্তাহে জেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে জেলায় ১২ জনের মৃত্যু হলেও ওই সকল পরিবারের লোকজন বিষয়টি অস্বীকার করছেন। #


পুরোনো সংবাদ

হাইলাইটস 4035689981309348995

অনুসরণ করুন

Logo

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item