সকলের মাঝে বাঁচার আকুতি শফিকুলের


হাফিজুর রহমান হৃদয়,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

একজন স্বপ্নবাজ যুবক শফিকুল ইসলাম শফিক (২৯)। সে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী পৌরসভার মালভাঙ্গা গ্রামের আবু তালেব মিয়া এবং রহিমা বেগমের ছেলে। মা, বাবা, ছোট ভাই, স্ত্রী এবং ৩ বছরের মেয়েকে নিয়েই সুখের সংসার তার। সংসারের একমাত্র আশা ভরসা শফিকুল। অথচ সেই পরিবারের একমাত্র কর্মক্ষম যুবক শফিকুলের জীবন প্রদীপ নিভে যেতে বসেছে আজ। 

তার পরিবার জানায় পেশায় একজন কাঠমিস্ত্রি শফিকুল। তার সামান্য আয়ে বেশ হাসি-খুশিতেই চলতো তাদের সংসার। কিন্তু সে সুখ বেশিদিন সয়নি তার ভাগ্যে। দিনে দিনে অসুস্থ হয়ে পরে সে। কোনো কাজ কর্ম করতেও পারে না। পরে ডাক্তারের কাছে পরীক্ষা নিরীক্ষা করলে ডান কিডনিতে জটিলতা ধরা পড়ে তার। ফলে বন্ধ হয়ে যায় রোজগারের পথ। ধোঁয়াশায় মিশে যেতে থাকে সংসারের সব সুখ। পরে কিডনি অপারেশন করা হয় তার। কিন্তু তাতেও কোনো ফল হয়নি। বরং কিছুদিন পর আবারও সমস্যায় ভুগতে থাকেন শফিকুল। এভাবে বিভিন্ন যায়গায় জিকিৎসা করতে গিয়ে এখন সহায় সম্বলহীন হয়ে আজ পথে বসতে চলেছে তার পরিবার। এদিকে আবারও পরীক্ষা নিরীক্ষা করলে তার ডান কিডনি ৯৬ ভাগ ড্যামেজ হয়েছে বলে জানায় রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক ও ইউরোলোজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. শহিদুল ইসলাম সুগম। যা এখন পুরোটাই অকেজো হয়ে গেছে। তাই অতিদ্রুত দেশের বাইরে গিয়ে তার কিডনি অপারেশন করে তা প্রতিস্থাপন করতে হবে বলেও পরামর্শ দিয়েছেন ওই চিকিৎসক। এতে ব্যয় হবে প্রায় ৫লাখ টাকা। যা তার গরিব ও অসহায় পরিবারের পক্ষে এত টাকা খরচ বহন করা একেবারেই সম্ভব নয়। এমতাবস্থায় জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে অসহায় শফিকুল এই সুন্দর পৃথিবীতে সকলের সঙ্গী হয়ে বেঁচে থাকতে সরকারি-বেসরকারিসহ সমাজের দানশীল ও বিত্তবানদের নিকট সহযোগিতার আকুতি জানিয়েছেন। 

শফিকুলকে সহযোগিতার হাত বাড়াতে এবং যোগাযোগ করতে নিম্নে বিকাশ (পার্সোনাল) নাম্বার দেয়া হলো-০১৭৪২৬৩৮১৮৭  (রোগি)।


পুরোনো সংবাদ

নির্বাচিত 2361984006092525840

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item