ডোমারে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ


আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি>>

নীলফামারীর ডোমারে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেলো পারভীন আক্তার। 

ঘটনাটি উপজেলার জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের বালাপাড়া গ্রামে। জানা যায়, উক্ত গ্রামের রশিদুল ইসলামের স্কুল পড়ুয়া কন্যা মিরজাগঞ্জ দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেনীর ছাত্রী পারভীন আক্তার (১৫) র সাথে একই ইউনিয়নের সদরপাড়া এলাকার  দেলোয়ার হেসেনের ছেলে ওমর ফারুক এর বিয়ের দিন তারিখ ঠিক হয় গত বৃহস্পতিবার।  রাত ৯ টায় চুপি সারে বিয়ের পরিকল্পনা করেন তারা। ওই দিন বিকালে এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনা শবনম কে পারভীনের বাল্য বিয়ের বিষয়টি জানায়। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাৎক্ষনিক ভাবে ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক ও গ্রাম পুলিশকে বাল্য বিয়ে বন্ধের নির্দেশ দেন। ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশ পারভীনের বাড়িতে গিয়ে তার বাবা ও মাকে বাল্য বিয়ে আইনত দন্ডনিয় অপরাধ বিষয়ে বুঝিয়ে ইউপি সদস্য ২জন গ্রাম পুলিশ উপস্থিত থেকে বিয়ে বন্ধ করে দেয়। প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ হওয়ায় সাধুবাদ জানান এলাকার সচেতন মহল। 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 1744833172835704145

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item