তেঁতুলিয়ায় ৫৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার


মুহম্মদ তরিকুল ইসলাম-
পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৫৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে তেঁতুলিয়া মডেল থানা পুলিশ।

১অক্টোবর /২০২০ বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ভজনপুর ইউনিয়নর ভুতিপুকুর এলাকার শালবাহান-ভজনপুর জিসি সড়কের খালের ব্রিজে মাদকদ্রব্য বেচা-কেনা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই আব্দুল কুদ্দুস ও এসআই শাহাদৎ হোসেনের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঐ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আটককৃতদের সঙ্গে থাকা অপর দুই মাদক ব্যাবসায়ী পালিয়ে যায়। এসময় তাদের কাছ থেকে নিষিদ্ধকৃত ভারতীয় ৫৪ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। আটককৃতরা হলো ভুতিপুকুর গ্রামের খাদেম উদ্দিনের পুত্র শাহাদত হোসেন (৩৩) ও শাহিনুর ইসলামের পুত্র রবিউল ইসলাম (২৩)।

তাদের থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে পলাতক অপর দুই মাদক ব্যাবসায়ীদেও নাম প্রকাশ করেন। পলাতক মাদক ব্যাবসায়ীরা হলো বাংলাবান্ধা ইউনিয়নের বাইনগজ গ্রামের জহির উদ্দিনের পুত্র ফারুক হোসেন (৩৮) ও ভুতিপুকুর গ্রামের নেদা ইসলামের পুত্র আব্দুল মালেক (২৮)।

পরে থানার এসআই আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ এর বি ধারায় ৪ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

এলাকাবাসি সূত্রে জানাযায়, ভুতিপুকুর সীমান্ত এলাকা দিয়ে মাদকদ্রব্য ও গরু চোরাচালানের নিরাপদ রুট হিসেবে ব্যবহার করে থাকে চোরাকারবারীরা। এ রুট দিয়ে প্রায় প্রতিদিনই বিজিবিকে ম্যানেজ করে চোরাই পথে ভারত থেকে নিয়ে আসে নেশাজাতীয় দ্রব্য হিরোইন ইয়াবা, ফেন্সিডিল, গাজা, গরু-মহিষ। এ রুট দিয়েই জেলার বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ করে থাকেন ব্যবসায়ীরা।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আবু সাঈদ চৌধুরী জানান, আটককৃতরা পুলিশ ও বিজিবির চোখকে ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন কৌশলে সীমান্তের ওপার থেকে চোরাই পথে দীর্ঘদিন যাবৎ মাদকদ্রব্য পাচার করে আসছিল। আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের আটক করে মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করেছি।


পুরোনো সংবাদ

পঞ্চগড় 4951630830140459252

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item