পার্বতীপুরে প্রতিবন্ধী মাদ্রাসা ছাত্রকে মারপিটের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেপ্তার


এম এ আলম বাবলু,পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ


দিনাজপুরের পার্বতীপুরে হুমায়ন কবির নামে এক শিক্ষকের বেদম মারপিটে গুরুতর আহত হয়েছে সাকিব নামে এক প্রতিবন্ধি মাদ্রাসা ছাত্র। এ ঘটনায় আজ শনিবার সকালে পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশ উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের ধোবাকল আটরাই গ্রাম থেকে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাত্রকে পেটানো  শিক্ষক হুমায়নকে গ্রেপ্তার করেছে৷ সাকিব পার্বতীপুরের চকবোলিয়া এস দ্বি-মুখী মাদ্রাসার ৮ম শ্রেণির ছাত্র। অভিযুক্ত হুমায়ুন কবির উপজেলার নুরুল হুদা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজির শিক্ষক৷

জানা গেছে,গত বৃহস্পতিবার দুপুরে পার্বতীপুর উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের আটরাই মাদ্রাসার ডাঙ্গা সড়কে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত শিক্ষক প্রভাবশালী পরিবারের সদস্য হওয়ায় তাদের হুমকির মুখে ওই দিনই সাকিব দাদীকে নিয়ে লালমনিরহাটের বড়খাতা গ্রামে তার নানা বাড়ীতে চলে যেতে বাধ্য হয়। ইতিমধ্যে মাদ্রাসা ছাত্রের অমানবিক নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হলে পার্বতীপুরে হৈচৈ পড়ে যায়।


গতকাল শুক্রবার দুপুরে সরেজমিন পলাশবাড়ী ইউনিয়নের আটরাই ডাঙ্গা গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, সাকিবের বাবার বাড়ীর দরজায় তালা ঝুলছে। জানা যায়,তার বাবা রমনা আহমেদ কর্মস্থল ঢাকায় অবস্থান করছেন। মা কয়েক দিন আগে বাবার বাড়ী বেড়াতে গেছেন। রমনা আহমেদের বড় ছেলে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী সাকিব আহমেদ (১৪) দাদির সাথে বাড়ীতে অবস্থান করছিল।ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ইকতিয়ার হক (৫২) ও আলাউদ্দীন মন্ডল (৫৫) জানান, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে একই ইউনিয়নের নুরুল হুদা উচ্চ বিদ্যায়লয়ের ইংরেজির শিক্ষক হুমায়ুন কবির প্রতিবন্ধী সাকিবকে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে মাদ্রাসা ডাঙ্গা এলাকায় নিয়ে যায়। সেখানে তাকে কাচাঁ বাশের লাঠি দিয়ে বেদম মারপিট, চড়-থাপ্পড় ও এলোপাথারি কিলঘুষি মারা হয়। এতে সে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এর আগে একই স্থানে অভিযুক্ত শিক্ষকের ভাতিজা সৌরভ প্রতিবন্ধি মাদ্রাসা ছাত্র সাকিবকে আরেক দফা মারধর করে। এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে এলাকায় হৈচৈ পড়ে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, শিক্ষক হুমায়ুন কবির পরিবার জনবলে ও অর্থ সম্পদে প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকার কেউ এঘটনার প্রতিবাদ করতে এগিয়ে আসেনি। উপরন্ত যারা শারিরীক নির্যাতনের ভিডিও ধারন করেছে তাদেরকে ও নির্যাতিত মাদ্রাসা ছাত্রের পরিবারকে এ ব্যাপারে কারো কাছে মুখ না খোলার জন্য বাড়ী বাড়ী গিয়ে হুমকি দিচ্ছে শিক্ষক হুমায়ুন কবির ও তার পরিবারের সদস্যরা।

অভিযুক্ত শিক্ষক হুমায়ুন কবির তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সাকিব দৃষ্টিপ্রতিবন্ধি হলেও সে ভাল ছেলে নয়। তার ত্রুুটি পাওয়ায় আমি তাকে শাসন করেছি৷

এদিকে সোশ্যাল মিডিয়া,অনলাইন নিউজ পোর্টাল,প্রিন্ট মিডিয়ায় মারধরের ভিডিও ভাইরাল হলে চারিদিকে হৈচৈ শুরু পড়ে যায়৷ এরই প্রেক্ষিতে সাকিবের বাবা রমনা আহম্মেদ বাদী হয়ে পার্বতীপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে আজ শনিবার সকালে পুলিশ শিক্ষক হুমায়নকে গ্রেপ্তার করে৷

পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মোঃ মোখলেছুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, মামলা দায়েরের পর প্রতিবন্ধী ছাত্রকে মারপিটের অভিযোগে শিক্ষক হুমায়নকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷

পুরোনো সংবাদ

নির্বাচিত 2693519360616667663

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item