ডিমলায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে মোবাইল কোর্টে জরিমানা ।


ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার নাউতারা ইউনিয়নের কৈ পাড়া গ্রামের কছোর টারী এলাকায় ডিমলা থানার সেকেন্ড অফিসার উজ্জ্বল শাহ্ সহ সঙ্গীয় ফোর্স ও পেশকার রোকনুজ্জামান রোকনকে সঙ্গে নিয়ে মোবাইল কোর্টে বিশেষ অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ কারীকে (৫০.০০০) পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ডিমলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মোবাইল কোর্টের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জয়শ্রী রানী রায়। এসময় নাউতারা ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম লেলিন, উক্ত ইউনিয়নের ভূমি অফিসার তহিদুল ইসলাম, অফিস সহকারী নুর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, ৯-সেপ্টেম্বর দুপুরে গোপন সংবাদের ভিক্তিতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে তিনি উক্ত গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র একরামুল হোসেন (৪৫) কে এ জরিমানা করেন। এ সময় তিনি অবৈধভাবে বালু উত্তোলন কাজে ব্যবহৃত অধিক শক্তিশালী ড্রেজার মেশিন, ব্যবহার বন্ধ করে দেন। 

সাধারণ জনগণের সামনে ঘটনাস্থলেই উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়শ্রী রানী রায় বলেন, এই উপজেলায় কোন ভাবেই অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অনুমতি দেওয়া হয় না। কেহ করে থাকলে তা চুপিসারে অবৈধভাবেই উত্তোলন করছেন। তবে বালু উত্তোলনের খবর পেলে এবং হাতে নাতে ধরতে পারলে কোন ছাড় দেওয়া হবে না। কঠোর হস্তে দমন করা হবে। তিনি আরো বলেন, বালু ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০’র ধারায় অবৈধভাবে মাটি ও বালু উত্তোলনের অপরাধ সংঘটিত হলে কঠোরভাবে আইনী ব্যবস্থা  নেওয়া হবে।  

উক্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে একরামুল হোসেন নামের একজন ব্যক্তিকে (৫০.০০০) পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ডিমলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মোবাইল কোর্টের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জয়শ্রী রানী রায়। কিন্তু তাৎক্ষনিক জরিমানার অর্থ প্রদানে অপারগতা প্রকাশ করলে ভ্রাম্যমান আদালত তাকে ৭ দিনের কারাদন্ড প্রদান করেন। 

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 3891445510910686071

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item