ডোমারে শিক্ষকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন,গ্রেফতার ১

আবু ফাত্তাহ্ কামাল (পাখি),স্টাফ রিপোর্টার ঃ নীলফামারীর ডোমার সরকারী কলেজে আজ রবিবার দুপুর ১২ টায়  শিক্ষকের উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচার ,অবিলম্বে  সন্ত্রাসী শান্ত ও সৈকদসহ তাদের সহযোগীদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবীতে  মানববন্ধন করেছে চারটি সরকারী কলেজের শিক্ষকরা ।
ডোমার সরকারী কলেজের আয়োজনে এ মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন ডোমার সরকারী কলেজের  অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) রবিউল করিম ।
এতে বক্তব্য রাখেন  বিসিএস  সাধারন শিক্ষা  সমিতি নীলফামারী শাখার সভাপতি জাহেদুল ইসলাম,নীলফামারী সরকারী কলেজের সহকারী অধ্যাপক (রাষ্ট্রবিজ্ঞান) আনিছুর রহমান, ডোমার সরকারী কলেজের সহকারী অধ্যাপক (পদার্থ) রেজাউল ইসলাম, চিলাহাটি  সরকারী কলেজের প্রভাষক (রাষ্ট্রবিজ্ঞান)  কানু চন্দ্র রায় প্রমুখ ।
বক্তারা বলেন,সন্ত্রাসীকে অবিলম্বে কলেজ থেকে বহিস্কার, ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদের গ্রেফতার,শিক্ষকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারলে  তাদের বিভিন্ন কলেজে প্রত্যাহারের দাবী করেন । অবিলম্বে দাবী না মানলে আরো কঠোর আন্দোলনের হুমকী দেন ।

এ ব্যাপারে বাংলা বিভাগের শিক্ষক সবুজ আহমেদ জানান, আমি এক মাস আগে ডোমার সরকারী কলেজে থেকে বদলী হয়ে এসেছি । আমি এখন শিক্ষা অধিদপ্তরে কর্মরত আছি ।ওখানে থাকা কালিন এই শান্ত প্রথম বষের্র ক্লাসে বেয়াদবী করলে প্রিন্সিপালকে জানাই ,দ্বিতীয় বর্ষে আবারও ক্লাসে বেয়াদবী করলে আবার প্রিন্সিপাল স্যারকে জানাই,এবার স্যারকে বলি আপনি ব্যবস্থা না নিলে আমি ক্লাসে যাব না ।উনি ব্যবস্থা না নেওয়ায় ,আমি বদলী নিয়ে চলে এসেছি ।ঐ ছেলে বাংলা শিক্ষিকাকেও টিজ করেছে ।
উল্লেখ্য, বাংলা ক্লাসে জনৈক শিক্ষক মুন্না  (একাদশের মানবিক শাখা)  নামে একজন শিক্ষার্থীকে একটি সহজ প্রশ্ন করেন । তার উত্তর দিতে না পারলে ,অন্য শিক্ষার্থীরা হেসে উঠে ।এতে শান্ত ক্ষিপ্ত হয়ে শফিকুল্লা (বিজ্ঞান শাখা) নামে এক শিক্ষার্থীকে মারধর করতে থাকলে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক সলেমান আলী এগিয়ে আসে ।এ সময় (  গত শনিবার দুপুরে ৭ সেপ্টেম্বর)তাকেও মারধর করে শান্ত ও সৈকদ তার সহযোগীরা ।শিক্ষক সলেমান আলী ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানান শিক্ষকরা ।

এ ঘটনায় ডোমার থানায় গত কাল শনিবার  রাতে (০৭/০৯/১৯ইং) শিক্ষক সোলেমান আলী বাদী হয়ে দুই জন নামীয়  ,অজ্ঞাত ১৬/১৭ জনের নামে একটি মামলা করেন ।।যার নম্বর ০৮ । তারিখ ০৭/০৯/১৯ইং । শান্ত ডোমার পৌরসভার কলেজপাড়ার  লিটন রহমানের পুত্র ও এইচ এস সি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে ।
এ ঘটনায় ডোমার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম চিকনমাটির দোলাপাড়ার নজরুল ইসলামের পুত্র নাজিমুল ইসলাম(১৭)কে আজ রবিবার  দুপুর ১২ টায়  গ্রেফতার করে েেডামার থানা পুলিশ ।
এ ব্যাপারে ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) বিশ্বদেব রায় জানান, নাজিমুল ইসলাম নামে সন্দেহভাজন একজন কে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে ,অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে ।

পুরোনো সংবাদ

শিক্ষা-শিক্ষাঙ্গন 4522957472044446152

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item