সৈয়দপুরে কোভিড - ১৯ টিকাদান কার্যক্রম সাময়িক স্থগিত


তোফাজ্জল হোসেন লুতু,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি

নীলফামারীর সৈয়দপুরে কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) টিকাদান কার্যক্রম সাময়িক স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) থেকে বরাদ্দকৃত টিকা শেষ হয়ে যাওয়ায় টিকাদান কর্মসূচি স্থগিত ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে বরাদ্দ পাওয়া সাপেক্ষে পুনরায় কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রম শুরু করা  হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

 উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সারাদেশের মতো যথারীতি নীলফামারীর সৈয়দপুরেও কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়।  গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রথম ডোজ এবং ৮ এপ্রিল থেকে দ্বিতীয় ডোজ টিকাদান কর্মসূচি শুরু  করা হয়। সৈয়দপুর উপজেলায় তিনটি কেন্দ্রে ওই টিকাদান কর্মসূচি পরিচালিত হয়। কেন্দ্রগুলো হচ্ছে তন্মধ্যে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স  এবং সৈয়দপুর সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল কেন্দ্র। তবে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে দুইটি কেন্দ্র ছিল। সৈয়দপুর উপজেলায় কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) টিকার বরাদ্দ মেলে সর্বমোট  ২১ হাজার ৪১০ ডোজ। এর মধ্যে প্রথম ডোজ ১২ হাজার ২১ এবং দ্বিতীয় ডোজ ৯ হাজার ৩৮৯। বরাদ্দকৃত টিকার ডোজের সবগুলোই প্রদান শেষ হয়েছে ইতোমধ্যে। ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে টিকাদান কার্যক্রম সাময়িক স্থগিত করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত লেখা একটি ব্যানার টাঙিয়ে দিয়ে টিকাদান কার্যক্রমের সাময়িক স্থগিত ঘোষণা দেয়া হয়েছে। আর এতে লেখা হয়েছে “কোভিড - ১৯ ভ্যাকসিনের সরবরাহ না থাকায় সাময়িকভাবে ১ম ও ২য় ডোজ টিকাদান কর্মসূচি স্থগিত করা হলো। কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন পাওয়া সাপেক্ষে পুনরায় টিকাদান কার্যক্রম শুরু করা হবে।”

 সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু মো. আলেমুল বাসার, কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রম সাময়িক স্থগিতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, ভ্যাকসিন বরাদ্দ পাওয়ার পর আবারও টিকাদান কর্মসূচি শুরু  হবে। 


পুরোনো সংবাদ

স্বাস্থ্য-চিকিৎসা 3750488056461278829

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item