লকডাউনে সৈয়দপুরে মাদরাসায় পরীক্ষা চলছে!


নির্ণয়,নীলফামারী॥
করোনা মোকাবেলায় সরকারের জারিকৃত প্রজ্ঞাপনের বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে একটি মাদরাসায় শিক্ষার্থীদের লিখিত পরীক্ষা নেয়া হয়। বুধবার(৭ এপ্রিল/২০২১) সকালে নীলফামারী সৈয়দপুর উপজেলা শহরের টেকনিক্যাল কলেজপাড়া এলাকায় অবস্থিক আল হেরা হিফজুল কুরআন এন্ড নূরানী কিন্ডারগার্টেনে এ দৃশ্য দেখা গেছে। করোনার প্রকোপের সময় কোমলমতি শিশুদের ডেকে নিয়ে পরীক্ষা গ্রহণের ঘটনায় এলাকাবাসী ও অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। 

স্খানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা আজ বুধবার সকাল ১০ টায় সরেজমিনে আল হেরা হিফজুল কুরআন এন্ড নূরানী কিন্ডারগার্টেনে গিয়ে দেখতে পায় অফিস কক্ষে প্রায় সব শিক্ষকই উপস্থিত। দ্বিতল ভবনের নিচ তলায় ক্লাস রুমগুলো ফাঁকা। কিন্তু দ্বিতীয় তলায় একটি কক্ষে চলছে পরীক্ষা। সেখানে অভিভাবকরাও উপস্থিত। শিশু শ্রেণির ও পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থীরা লিখিত পরীক্ষা দিচ্ছে! 

এ সময় পঞ্চম শ্রেণির পরীক্ষার্থী রেজওয়ানুল ফেরদৌস জানায়, মাদরাসার পরিচালক তাদের অভিভাবকদের মোবাইলে ডেকে নিয়ে পরীক্ষা দিতে বলেছে। তাই তারা এসেছে পরীক্ষা দিতে। আজ বাংলা পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। একই কথা জানায় আরেক পরীক্ষার্থী আদনান। সে শিশু শ্রেণির আরবি পরীক্ষা দিচ্ছে। 

মাদরাসার পরিচালক আল মাহদী বলেন, আমাদের বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের এনে প্রশ্নপত্র বুঝিয়ে দেয়া হচ্ছে। তারা বাসায় গিয়ে বোর্ডের দেয়া খাতায় পরীক্ষা দিবে। এখানে কোন পরীক্ষা নেয়া হচ্ছেনা। 

শিক্ষার্থীরা রিতিমত লিখিত পরীক্ষা দিচ্ছে ,শিক্ষার্থীরা খাতায় প্রশ্নের উত্তর লিখছে কেনো জানতে চাইলে  তিনি রেগে গিয়ে বলেন গত ৭ মাসে অনেক সাংবাদিক ও প্রশাসন এসেছে। কিন্তু কিছুই করতে পারেনি। আমরা ইক্বরা নূরানী হিফজুল কুরআন বোর্ডের অধীনে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করি।  এখানে কোন বন্ধ ঘোষনা হয়নি। এলাকাবাসীর অভিযোগ ওই প্রতিষ্ঠানটি হেফাজতের অনুসারী হওয়ায় তারা কোন বাধা নিষেধ মানেনা।

 সৈয়দপুর দারুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা হারুন রিয়াজির সঙ্গে গণমাধ্যম কর্মীরা এ বিষয়ে কথা বললে তিনি জানান, করোনার এই মুহুর্তে কোন মাদরাসা খোলা থাকার কথা নয়। তারা কেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে রেখে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিচ্ছেন তারাই ভাল বলতে পারবেন। 

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাসিম আহমেদকে গণমাধ্যম কর্মীরা অবগত করলে তিনি বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান। #


পুরোনো সংবাদ

শিক্ষা-শিক্ষাঙ্গন 7831317230812008958

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item