ডোমারের প্রায় ১৫ হাজার কৃষক কাজের সন্ধানে ছুটছে দক্ষিণাঞ্চলে


এ.আই.পলাশ.চিলাহাটি প্রতিনিধিঃ
নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের প্রায় ১৫ হাজার কৃষক ধান কাটার জন্য নিজ এলাকা ছেড়ে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা/উপজেলায় যাচ্ছে। করোনা ভাইরাসের কারনে সারাদেশে লকডাউন দেওয়ায় নিজ এলাকায় কাজ না থাকার জন্য ধান কাটার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে এসব কৃষক। বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারনে দেশের প্রায় সব বাস, ট্রেন বন্ধ থাকায় দিনমুজুররা অনেক বিপাকে পরেছিল। নীলফামারী জেলা থেকে নওগাঁ জেলা কৃষি শ্রমিকদের প্রেরণ করার জন্য জেলা পুলিশ ব্যবস্থাপনায় মাইক্রোবাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ১২টি মাইক্রোবাসে প্রায় ১৯৫/২০০ জন কৃষক ধান কাটার জন্য আত্রাই, নওগাঁ, শান্তাহার ,নোয়াখালী, রানীনগর সহ বিভিন্ন জায়গার উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছে। দিনমুজুরদের সুবিধার কথা ভেবে জেলা-উপজেলা পরিষদ, থানা ও উপজেলা প্রশাসন এক সঙ্গে এ বিষয়ে কাজ করছে। কৃষি শ্রমিকদের সাথে কথা বললে তারা জানায়,“সারাদেশে লকডাউন হওয়ায় আমাদের নিজ এলাকায় কোন কাজ নেই। আর বাসায় বসে থেকে তো আর সংসার চালানো সম্ভব না। আমরা দিনমুজুর মানুষ। একদিন ঘর থেকে বের না হলে আমাদের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার মতো কেউ নেই। তাই দেশে যতই লকডাউন দেওয়া হোক, সংসার চালানোর দায়ে আমাদের ঘর থেকে বের হতেই হবে। তাই আমরা আমাদের নিজ এলাকার চেনা জানা বেকার যুবকদের একত্রিত করে বিভিন্ন জেলায় যাই ধান কাটার জন্য। নিজের ও সংসারের খরচ বাদে সামান্য কিছু টাকা সঞ্চয় হয়। আমরা প্রতি বিঘায় ৩ হাজার টাকা করে মুজুরি নেই। প্রতিদিন প্রায় ৪/৫ বিঘা ধান কেটে থাকি। আর আমাদের একেকজনের ভাগে ৭০০/৮০০ টাকার মতো মুজুরি পরে থাকে। আর আমাদের সুবিধার কথা ভেবে যে মাইক্রোবাসগুলো দেওয়া হয়েছে এতে আমাদের অনেক ভালোই হয়েছে”। 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 3931902567547400480

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item