করোনা টিকা দিলেন নীলফামারী জেলা প্রশাসক সহ সকল কর্মকর্তা॥ পঞ্চম দিনে ২৬৯০ জন


ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারী॥
সারা দেশের ন্যায় করোনার টিকা প্রদাণ কার্যক্রমে পঞ্চম দিনে করোনা টিকা দিলেন নীলফামারী জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী। এসময় জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারাও টিকা গ্রহণ করেন। এসময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন ও তার সহধর্মীনী টিকা গ্রহন করেন। এছাড়া অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজহারুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) খন্দকার মোঃ নাহিদ হাসান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মীর্জা মুরাদ হাসান বেগ, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট বেলায়েত হোসেন, এনডিসি জাহাঙ্গীর হোসাইন, সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মফিজুর রহমান প্রমুখ। 

আজ বৃহস্পতিবার(১১ ফেব্রুয়ারী/২০২১) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত জেলায় টিকা নিয়েছেন ২ হাজার ৬৯০ জন। এর মধ্যে নারী রয়েছেন ৭৩২ জন। নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে তাৎক্ষনিক নিবন্ধন ও তাৎক্ষনিক টিকা গ্রহন করেছে ২৭১ জন। ৭-১১ ফেব্রুয়ারী পাঁচদিনে জেলায় মোট করোনা টিকা গ্রহন করেছেন ৬ হাজার ৯০ জন। এর মধ্যে নারী রয়েছেন ১ হাজার ৪৪৭ জন। 

বেলা ১টায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জেলার রামনগর ইউনিয়নের চাঁদের হাট এলাকার ৯৩ বছরের বৃদ্ধা রাবেয়া বেগম হুইল চেয়ারে করোনা টিকা গ্রহণ করতে এসেছেন। কিন্তু তার নিবন্ধন করা ছিল না। টিকা কেন্দ্রের প্রবেশ মুখের কাউন্টারে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান করলে তারা তাৎক্ষনিকভাবে ওই বৃদ্ধার নিবন্ধন সম্পন্ন করেন। এরপর তিনি টিকা গ্রহণ করতে সক্ষম হন। ৩০ মিনিট পরে তাহাকে জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান, ৩০ মিনিট অতিক্রম হয়েছে। আমি এখন সুস্থ আছি। আমার মতো যারা রয়েছেন তাদের আহবান করবো তারা নিবন্ধন করে টিকা কেন্দ্রে এসে করোনা টিকা গ্রহন করে। উৎসাহের সাথে এমনি কথা জানান শহরের কবরস্থান মোড় এলাকার ফাতেমা খাতুন (৮০)। 

এদিকে নীলফামারী-২ আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূরের নির্দেশনায় ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতাল টিকা প্রদান কেন্দ্র চত্বরে সাধারণ মানুষের জন্য ফ্রি নিবন্ধন বুথ বসানো হয়েছে। সেখানে আজকে নিবন্ধন করেছেন ১২৭ জন। 

এসময় জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, জনগণের সেবায় আমি সহ জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের যেসকল কর্মকর্তারা রয়েছেন সকলে টিকা কেন্দ্রে এসেছে টিকা নিয়েছি। আমি আশা করি জেলার সকলে এই টিকাটি গ্রহণ করে করোনা মোকাবেলায় সরকারের সহযোগীতা করুক। 

এদিকে সারা দেশের ন্যায় করোনা ভাইরাসের টিকা দেওয়ার পঞ্চম দিন নীলফামারীর ৬টি হাসপাতালে টিকা গ্রহনের সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে আছে। গত ৪ দিনের তুলনায় নারী টিকা গ্রহনকারী বৃদ্ধি পেয়েছে। এরমধ্যে জেলা সদরে ১০৪০ জনের মধ্যে নারী ২৮০ জন, সৈয়দপুরে ৪৮০ জনের মধ্যে নারী ১১৭ জন, সেনাবাহিনীর সিএমএইচ হাসপাতালে ৬০ জনের মধ্যে নারী ১০ জন, ডোমারে ৩৬০ জনের মধ্যে ১১৬ জন নারী, ডিমলায় ৩৩০ জনের মধ্যে ৮১ জন নারী, জলঢাকায় ২৮০ জনের মধ্যে ৭৩ জন নারী ও কিশোরীগঞ্জে ১৪০ জনের মধ্যে ৫৫ জন নারী। 

নীলফামারী সিভিল সার্জন ডাঃ জাহাঙ্গীর কবির জানান, পাঁচদিনে জেলায় করোনা টিকা গ্রহন করেছেন ৬ হাজার ৯০ জন। এরমধ্যে নারী ১ হাজার ৪৪৭ জন। ৬টি হাসপাতালের টিকা কেন্দ্রের সামনে স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষে অনলাইনে ফ্রি নিবন্ধন ব্যবস্থা করেছি। যারা নিবন্ধন করতে সমস্যা মনে করছেন তারা এখানে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান করে তাৎক্ষনিক ভাবে নিবন্ধন সম্পাদন করেই তাৎক্ষনিকভাবেই টিকা নিতে পারছেন। এছাড়া নীলফামারী জেলায় ৬০ হাজার টিকার মধ্যে ৩০ হাজার ব্যাক্তি প্রথম ও দ্বিতীয়ডোজ পাবেন। # 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 8975164719535332865

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item