দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে বাড়ছে টিকা গ্রহীতার সংখ্যা


মেহেদী হাসান উজ্জল,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাভাইরাস প্রতিরোধের টিকা গ্রহণ করতে উপচে পড়া ভিড়। বাড়ছে টিকা গ্রহীতার সংখ্যা,রোগীর কোঠা শুন্যতে। দিনাজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কথ্য মতে এ উপজেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা বর্তমানে শুন্যতে দাড়ীছে।  

গত দুই সপ্তাহ থেকে নতুন কোন ব্যাক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়নি এ উপজেলায়। পৌর মেয়র আলহাজ¦ মাহমুদ আলম লিটনসহ সমাজের বিশিষ্ট ব্যাক্তিরা নিয়েছেন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ভ্যাকসিন (টিকা)।

শনিবার সকাল ১০ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকাদান কেন্দ্রে সাধারণ মানুষের সাথে লাইনে দাড়িয়ে তিনি করেনা ভাইরাস প্রতিরোধের টিকা গ্রহন করেন।

পৌর মেয়র আলহ্জ¦ মাহমুদ আলম লিটন বিজয়ের চিহ্ন দেখিয়ে বলেন এই টিকা সহজ ও নিরাপদ,এই জন্য তিনি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সকলকে টিকা গ্রহনের আহব্বান জানান। 

এদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সকাল থেকে সন্ধা পর্যন্ত করোনা প্রতিরোধ টিকা নিতে আসা সমাজের বিভিন্ন স্থরের মানুষের উপচেপড়া ভিড় জমতে দেখা গেছে। প্রতিদিন সকাল থেকেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা গ্রহণ করতে মানুষের ঢল নামছে। উপচে পড়া ভিড় সামাল দিতে শুশৃংঙ্খলভাবে সিরিয়াল দেওয়া হচ্ছে। দুইটি পৃথক কক্ষে নারী-পুরুষদের টিকা প্রদান করা হচ্ছে। প্রথম দিকে টিকার বিষয়ে তেমন আগ্রহ না থাকলেও,দিন যত যাচ্ছে ক্রমেই বাড়ছে টিকা গ্রহনের আগ্রহ। প্রতিদিন বিভিন্ন বয়সের নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ টিকা গ্রহন করছেন। দিনদিন টিকা গ্রহন কারীর সংখ্যাও বাড়ছে। টিকা নিয়ে সকলের মনে স্বস্তি দেখা দিয়েছে।   


দিনাজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য মতে জানা গেছে, প্রথম দফায় এ উপজেলায় ৪ হাজার পিছ টিকা বরাদ্দ দেয়া হয়,১ম ডোজের লক্ষ্য মাত্রা ধরা হয়েছে ২হাজার ৮শত, শনিবার ১৩ই ফেব্রয়ারী সকাল পর্যন্ত এ পর্যন্ত নিবন্ধন হয়েছে ১৩শ ২০জন,প্রথম ডোজ টিকা গ্রহন করেছে ৬৪১জন। এদের মধ্যে জনপ্রতিনিধি, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যসহ কর্মকর্তা, সাংবাদিক, ব্যবস্যায়ী ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিসহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের জনসাধারণ  রয়েছে। যা শতকরা হারে ২৩ শতাংশ।


উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মশিউর রহমান বলেন চলতি ২০২১ সালের ২৯ জানুয়ারীর পর থেকে আর কোন ব্যাক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়নি। ফলে এই উপজেলায় গত দুই সপ্তাহ থেকে শূন্য রয়েছে করোনা রোগী।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মশিউর রহমান আরো বলেন গত ২০২০ সালের ১৪ এপ্রিল দৌলতপুর ইউনিয়নের মধ্যম পাড়া গ্রামের এনামুল হক ঢাকা নারায়নগঞ্জ থেকে ফিরার পর প্রথম করোনায় আক্রান্ত হয়, এরপর চলতি ২০২১ সালের সালের ২৯ জানুয়ারী পর্যন্ত এই উপজেলায় মোট ১৭২জন করোনায় আক্রান্ত হয়, এদের মধ্যে ৮জনের মৃত্যু হয়, বাঁকি ১৬৪জন সুস্থ হয়ে উঠে।


পুরোনো সংবাদ

দিনাজপুর 8405003489478225858

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item