নীলফামারীতে মুজিববর্ষে চতুর্থ জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস পালিত


ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারী॥
নানান কর্মসুচির মধ্য দিয়ে নীলফামারীতে মুজিব বর্ষে ৪র্থ জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস পালিত হয়েছে। “টেকসই উন্নয়ন,সমৃদ্ধ দেশ, নিরাপদ খাদ্যের বাংলাদেশ” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে মঙ্গলবার(২ ফেব্রুয়ারী/২০২১) সকাল ১১টা থেকে দুপুর পর্যন্ত দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন স্থানে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ক সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ, ডকুমেন্টারি ভিডিও প্রদর্শন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের আয়োজনে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) আজাহারুল ইসলামের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান(বিপিএম,পিপিএম), সিভিল সার্জন ডাঃ জাহাঙ্গীর কবির, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, পৌর সভার প্যানেল মেয়র মহম্মদ ঈসা আলী, জেলা কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান দুলাল, সাধারন সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম সিয়াম, হোটেল মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ ফারুক হোসেন প্রমুখ। আলোচনা সভায় জেলা নিরাপদ খাদ্য অফিসার জয় চন্দ্র রায় মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, খাদ্য উৎপাদন হতে শুরু করে খাদ্য সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণের বিভিন্ন ধাপে খাদ্যদ্রব্য অনিরাপদ থেকে রক্ষা করতে হবে। মানুষ খাদ্য গ্রহণ করে জীবনের শক্তি অর্জন ও সুস্থভাবে বেঁচে থাকতে। কিন্তু ভেজাল ও ক্ষতিকর খাদ্য মানুষের জীবন শক্তি কেড়ে নিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংস¤পূর্ণ। বর্তমান সরকার সংসদে নিরাপদ খাদ্য আইন-২০১৩ এবং ২০১৫ সালে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠা করে। কর্তৃপক্ষটি নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতকরণে নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা এবং সারাদেশে জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করছে। কয়েক বছর আগেও যেখানে খাদ্যদ্রব্যে ফরমালিনের উপস্থিতি ব্যাপক হারে পাওয়া যাচ্ছিল, সেখানে বর্তমানে খাদ্যদ্রব্যে ফরমালিন নেই বললেই চলে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেছিলেন দারিদ্র্যমুক্ত, ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশের। তার দেখানো রাস্তা ধরেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর সেই স্বপ্ন আমরা  পূরণ করতে মুজিববর্ষে সবাই মিলে নিরাপদ খাদ্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকারে একসঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে সমাজের সব স্তরের জনগণের জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে পারি।এ জন্য আমরা শপথ নিতে পারি !ভেজাল নিজে দেবো না, ভেজাল খাবো না, ভেজাল দিতে দেবো না।

আলোচনা শেষে জেলা কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) পক্ষে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে প্রচারপত্র বিতরন করা হয়। # 


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 5726210653336444796

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item