নীলফামারীতে সড়ক দূর্ঘটনায় এক ইপিজেড শ্রমিক নিহত॥ ৮ নারী সহ আহত ১১


ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারী॥
নীলফামারীতে নৈশ কোচের ধাক্কায় মশিউর রহমান (৪০) নামে উত্তরা ইপিজেডের এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। আজ শনিবার(২৭ ফেব্রুয়ারী/২০২১) সকাল ছয়টার দিকে ঘটনাটি নীলফামারী-সৈয়দপুর সড়কে জেলা সদরের সংগলশী ইউনিয়নের কামারপাড়া এলাকায় ঘটে। তিনি সদর উপজেলার ইটাখোলা ইউনিয়নের কানিয়ালখাতা মুন্সিপাড়া গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে। এঘটনায় ওই ইপিজেডের আটজন নারীসহ ১১ শ্রমিক আহত হয়েছেন।

নীলফামারী সদর থানার উপ-পরিদর্শক পরিতোষ বর্মন জানান, আজ শনিবার সকালের দিকে নীলফামারী শহর থেকে একটি ইজিবাইকে ওই সড়ক ধরে ১২জন শ্রমিক উত্তরা ইপিজেডের কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। এসময় কামারপাড়া এলাকায় পৌঁছলে সামনের দিক থেকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জিসা পরিবহনের একটি নৈশ কোচর ধাক্কায় তারা সকলেই আহত হন। খবর পেয়ে নীলফামারী দমকল বাহিনীর সদস্যরা আহতদের উদ্ধার করে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে ওনেয়।

নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আর,এম,ও) ডাঃ অমল রায় বলেন, হাসপাতালে আনার পর জরুরী বিভাগে চিকিৎসা চলাকালে মশিউর রহমানের মৃত্যু হয়। অন্যদের মধ্যে বেবী আকতার (২৮), শাহিনা বেগম (২৫) ও ইলিয়াস হোসেনকে (২৮) প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এছাড়া বানু বেগম (৩০), মাহমদুা বেগম (৩০), নুরনাহার (২৫), রোমানা বেগম (২৫), মোসলেমা (২৮), জেরিন (২০), রতন (৩৪) ও সোহেল রানা (২৫) নামে অপর আটজনকে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নীলফামারী সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহমুদ-উন-নবী বলেন, মশিউর রহমানের লাশ উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নৈশকোচটি আটক করা হলেও হলেও চালক এবং হেলপার পালিয়ে যায়। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। #


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 6005574650496184457

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

ফেকবুক পেজ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item