নীলফামারী-সৈয়দপুর মহাসড়ক প্রশস্তকরণ ভূমি ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে চেক বিতরণ শুরু


ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,,নীলফামারী॥
নীলফামারী-সৈয়দপুর আঞ্চলিক মহাসড়ক প্রশস্তকরণ ও মজবুতিকরণ প্রকল্পে ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে চেক বিতরণ শুরু হয়েছে। আজ সোমবার(১৬ নভেম্বর/২০২০) দুপুর ১টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ওই চেক বিতরণের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি নীলফামারী-২ আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর। অনুষ্ঠানে ১৭ জন ভূমি মালিকের মাঝে এক কোটি ৯ হাজার ৭১৬ টাকার চেক প্রদান করা হয়। 

এসময় প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। এটি অনেকের সহ্য হচ্ছে না। তারা নানা ভাবে নানান অপশক্তি উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছে। তিনি বলেন, গত ছয় থেকে সাত মাস ধরে বাংলাদেশে বিভিন্ন অপশক্তি নানা ভাবে নানান ধরণের অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা চালাচ্ছে। সেটা বাড়িতে আগুন লাগানো, গুজব ছড়ানো, ধর্মের নামে, ইসলামের দোহাই দিয়ে, বাস আগুন দিচ্ছে। 

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোঃ হাফিজুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন  জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান(বিপিএম,পিপিএম), স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক আব্দুল মোতালেব সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজহারুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) খন্দকার মো. নাহিদ হাসান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এলিনা আকতার, সিনিয়র সহকারী কমিশনার (এস এ, এল এ শাখা) নাহিদ তামান্না প্রমুখ। 

জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, অনুষ্ঠানে জমি অধিগ্রহণ ও অবকাঠামো বাবদ চড়াইখোলা, কুন্দপুকুর, সংগলশী তিন ইউনিয়নের ১৭জনের মাঝে ১কোটি ৯হাজার ৭১৫ টাকার চেক প্রদান করা হয়।


সূত্র মতে, ভূমি মালিকদের মাঝে ওই চেক বিতরণের মধ্য দিয়ে উক্ত সড়কটির জমি অধিগ্রহন প্রক্রিয়ার জট খুললো। ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতায় ২০১৭ সালে ২২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে গৃহিত সাড়ে ১৫ কিলোমিটারের সড়কটির উন্নয়ন কাজ শুরু হয়। প্রথম দফার মেয়াদ শেষে সময় বাড়ানো হয় দ্বিতীয় দফায়। দুই দফা সময়ে দুটি বছর পেরিয়ে মাত্র আট মাস বাকি থাকলে জমি অধিগ্রহণ জটিলতায় এ সময়ে কাজের অগ্রগতি হয় মাত্র ৫০ ভাগ। এমন অবস্থায় প্রকল্প ব্যয় বৃদ্ধির ফলে সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূরের উদ্যোগে বর্ধিত ২১৮ কোটি টাকা বরাদ্দ এনে ওই জমি অধিগ্রহণের জটিলতা নিরসন করা হয়। 


এদিকে একই দিন বিকালে সংসদ সদস্য জেলা সদরের সংগলশী ইউনিয়নের বারুনির ডাংগা এলাকায় সাড়ে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে খোড়া নদীর ওপর একটি সেতু, দুই কোটে ৯৩ লাখ টাকা ব্যয়ে সংগলশী হাজিপাড়া আলীম মাদ্রাসার চার তলা একাডেমিক ভবনের ভিত্তি স্থাপন করেন। #


পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 199793172503151911

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item