নীলফামারীতে কাজু বাদাম প্রক্রিয়াজাত কারখানার উদ্বোধন করলেন কৃষিমন্ত্রী


ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারী॥ কৃষিমন্ত্রী ড. মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেন, বাংলাদেশের কৃষিকে প্রচলিত গতানুগতিক কৃষি নয়, আধুনিক বানিজ্যিক কৃষিতে রূপান্তর করতে কাজ করছে সরকার। আমরা ধান উৎপাদ কমিয়ে কৃষিকে বহুমুখিকরণ করে শাক সবজী, ফলমূলসহ অর্থকরী ফসল উৎপাদন করবো। যেগুলো আমরা নিজেরাও খাবো এবং বিদেশে রপ্তানী করবো। সে রপ্তানীর মধ্যে সম্ভাবনাময় একটি ফসল ক্যাসু নাট। বাংলাদেশে কেশুনাটের বিশাল সম্ভাবনা আছে।
আজ রবিবার(৪ অক্টোবর/২০২০) বিকাল ৩টায় জেলা সদরের ইটাখোলা ইউনিয়নের চিনিকুঠি বাজার এলাকায় ‘জ্যাকপট ক্যাসু নাট ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’ নামে কাজু বাদাম প্রক্রিয়াজাত করণ কারখানার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
কৃষিমন্ত্রী আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টঙ্গীপাড়ায় বড় হয়েছেন, তিনি নিজে কাছে থেকে দেখেছেন এদেশের গরীব দুঃখি কৃষকের দুঃখ দূর্দশা। একারণে তিনি কৃষি ও কৃষক বান্ধব এবং কৃষক দরদী একজন মানুষ। তিনি ৯০ টাকার সারের দাম এক লাফে কমিয়ে ২৫ টাকায় এনেছিলেন। এ বছর সেটি আরও কমিয়ে হয়েছে ১৬ টাকা। পাশপাশি ইউরিয়ার দাম হয়েছে ১২ থেকে ১৩ টাকা।
কৃষির উন্নয়নের কথায় তিনি বলেন, ১৫ থেকে ২০ বছর আগে এই উত্তরাঞ্চলে আশ্বিন-কার্তিক মাসে মঙ্গা আসলে মানুষের যে অভাব হতো, একটা গ্রামের কোন মানুষের ঘরে খাবার থাকতো না, দুই চারজন বড় গৃহস্থ্য ছাড়া। সে অভাব দেশের অন্যান্য জেলার ন্যায় নীলফামারীসহ আশপাশ জেলাও ছিল। এমনকি মানুষ আত্নহত্যাও করেছেন। কিন্তু এখন কোন গ্রামে সে অভাব আর নেই। আমি অনেক মানুষের সঙ্গে কথা বলেছি, যারা চরে বাস করে তারাও বলেছেন অন্তত দুবেলা ভাত খেতে পারেন।
মন্ত্রণালয় পৃষ্ঠপোষকতা করবে জানিয়ে তিনি বলেন, পাহাড়ি কাজু বাদাম প্রক্রিয়াকরণের মাধ্যমে আমরা রফতানি করছি। মৌলভীবাজার ও পাহাড়ী এলাকার সাড়ে সাত লাখ হেক্টর পতিত জমিতে বাদাম উৎপাদন করা হবে। নীলফামারীর উঁচু এলাকায়ও কাজু বাদাম ও কফির চাষ করা হবে। এর ফলে জেলায় কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি কৃষির মানোন্নয়ন হবে।
কারখানা চত্বরে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী সভায় কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ইবনুল আরিফুজ্জামানের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক কৃষিবিদ মো. আবদুল মুঈদ, জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক মো. মেহেদী মাসুদ, রংপুর কৃষি অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ মোঃ মনিরুজ্জামান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপপরিচালক মো. ওবায়দুর রহমান মন্ডল, নীলফামারী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, ‘জ্যাকপট ক্যাসু নাট ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান প্রমানিক, ইংরেজী দৈনিক অবজারভারের প্রধান প্রতিবেদক মনসীনুল করিম লেবু, চ্যানেল ২৪ এর জেষ্ঠ্য প্রতিবেদক ফয়জুল সিদ্দিকী প্রমুখ।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের হাটিকালচার উইং পরিচালক মোঃ কবির হোসেন, কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের পরিকল্পনা প্রকল্প বাস্তবায়নের পরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ আলী, নীলফামারী কৃষি সম্প্রসারনের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ মাজেদুল ইসলাম ও সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ কামরুল হাসান।
পরে মন্ত্রীর হয়ে ‘জ্যাকপট ক্যাসু নাটস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড-২’ এর ফলোক উন্মোচন করেন কৃষি মন্ত্রনালয়ের মহাপরিচালক আব্দুল মুয়িদ।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 3841683949308089465

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item