পার্বতীপুরে আশংকা জনক হারে বাড়ছে করোনা রোগী॥ বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির শ্রমিকেরা করোনা ঝুঁকিতে






এম এ আলম বাবলু,পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে আশংকা জনক হারে বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা৷ এ পর্যন্ত এখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ২৩৭ জন৷ এর মধ্যে মারা গেছে ৪ জন৷  সবচেয়ে বেশী করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির শ্রমিকেরা৷ গত ২ দিনে এই খনির ২৮ জন শ্রমিক করোনা সনাক্ত হয়েছে৷ শুক্রবার পার্বতীপুর হেলথ কমপ্লেক্সের তথ্যানুযায়ী আক্রান্ত হয়েছে ১৯ জন এবং শনিবার আক্রান্ত হয়েছে ৯ জন৷ মোট এই ২৮ জনই বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির শ্রমিক৷ এরা হলেন-  মোঃ হেলাল মিয়া,শ্রী মনোজ হরিজন, শ্রী রাজন হরিজন, শ্রী রাজু হরিজন,শ্রী স্বপন হরিজন,মোঃ
হুজ্জতউল্লাহ,মোঃ আতিয়ার রহমান,শ্রী ধনঞ্জয় রায়,  মোঃ মোস্তাক আহমেদ, মোঃ মাহবুব আলম, মোঃ আব্দুল আজিজ, মোঃ ময়েন উদ্দিন,মোঃ শওকত আলী, মোঃ শফিকুল ইসলাম,মোঃ শাহিবুর রহমান,মোঃ তাজমুল হক, মোঃ মকবুল হোসেন মন্ডল,
মোঃ মাহফুজুর রহমান ,মোঃ মোশারফ,মোঃ হাতেম আলী আলী,মোঃ আহসান হাবীব,মোঃ গোলাম রব্বানী,মোঃ শহিদুল ইসলাম,মোঃ আব্দুর রাজ্জাক,মোঃ আবুল খায়ের,মোঃ হাবিবুর রহমান,মোঃ নূর নবী শাহ ও সাকিউল ইসলাম৷
মোট পার্বতীপুরের আক্রান্তের সংখ্যা ২৩৭জনের মধ্যে মোট সুস্থ্য হয়েছেন ১৬৭জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪জন। প্রতিদিনই এখানে অাশংকা জনক হারে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে৷ 
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্হ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.আব্দুল্লাহেল  মাফী বলেন,মূলত অসচেতনতার কারনেই করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে৷ এক প্রশ্নের  জবাবে তিনি বলেন,বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির শ্রমিকেরা সবচেয়ে বেশী করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে৷ তিনি অারো বলেন,
শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখুন। মাস্ক পরুন, ঘরের বাইরে মাস্ক না পরলে জরিমানার বিধান রয়েছে, হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করে আসবেন। স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন, নিজে ভাল থাকুন, পরিবারকে ভাল রাখুন, দেশ ও বিশ্ববাসীকে ভাল থাকবার সুযোগ করে দিন। 

পুরোনো সংবাদ

হাইলাইটস 4764738772814502389

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item