ভ্যালু চেইন গবেষণা ফলাফল অবহিতকরন ওয়েবিনার আলোচনা


প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ- আজ ২৭ আগস্ট/২০২০(বৃহস্পতিবার) জয়েন্ট অ্যাকশান ফর নিউট্রিশন আউটকাম (জানো) প্রকল্প ভ্যালু চেইন গবেষণা ফলাফল অবহিতকরণের জন্য একটি ওয়েবিনারের আয়োজন করা হয়েছে। এ প্রকল্পে অর্থায়ন করছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও সহ-অর্থায়নে রয়েছে অস্ট্রিয়ান ডেভলপমেন্ট কোঅপারেশন। জানো প্রকল্পটি কেয়ার, প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ও ইকো সোশ্যাল ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও)এর একটি কনসর্টিয়াম প্রকল্প।

জানো প্রকল্প রংপুর ও নীলফামারী জেলার গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী মা, পাঁচ বছরের কম বয়সি শিশু এবং কিশোর-কিশোরীদের অপুষ্টি দূরীকরণের লক্ষে কাজ করছে যা সরকারের জাতীয় পুষ্টি পরিকল্পনা ২ (NPAN-২) অর্জনেও সহায়ক ভূমিকা পালন করছে।

বাড়ির আঙ্গিনায় উচ্চ পুষ্টিমান সমৃদ্ধ কৃষি পণ্য উৎপাদন ও গবাদিপ্রাণি পালনের মাধ্যমে গৃহস্থলীর সদস্যদের পুষ্টি ঘাটতি পূরণের পাশাপাশি, নিরাপদ পানি, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা, পয়ঃনিষ্কাষন সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় সেবা সমূহ বিষয়ে জানো প্রকল্প সম্প্রতি একটি গবেষণা সম্পন্ন করেছে।

আজকের ওয়েবিনার আলোচনার মাধ্যমে এ প্রকল্পের গবেষণার ফলাফল ও পরামর্শ  উপস্থিত সবাইকে জানানো হয়েছে এবং উপস্থিত অতিথিবৃন্দের নিকট থেকে এ বিষয়ে পরামর্শ গ্রহণ করা হয়েছে।

এই আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. আব্দুল মুয়ীদ। এছাড়াও উক্ত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের প্রতিনিধিবৃন্দ, গবেষণা বিষয়ের সাথে প্রাসঙ্গিক সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ, উন্নয়ন সহযোগী, একাডেমিশিয়ান, প্রাকটিশনার্স ও সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের বিশেষজ্ঞগন।

উক্ত আলোচনায় উপস্থিত অতিথিবৃন্দ নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনের উপর বিশেষ গুরুত্ব প্রদান করেন এবং গবেষণায় সুপারিসকৃত বিষয়ের পাশাপাশি কম মূল্যমানের উচ্চ পুষ্টিমান সম্পন্ন পন্য যেমন সজনে পাতা, মিষ্টি আলু, ডিম ও ফর্টিফাইড শষ্যের কথা বিবেচনা করতে জানো প্রকল্পকে পরামর্শ প্রদান করেন।

রংপুর ও নীলফামারী জেলায় জানো প্রকল্পের কার্যক্রম:

জয়েন্ট অ্যাকশান ফর নিউট্রিশন আউটকাম (জানো) প্রকল্পটি রংপুর ও নীলফামারী জেলার গর্ভবতী ও  দুগ্ধদানকারী মা, পাঁচ বছরের নিচের শিশু, এবং কিশোর-কিশোরীদের পুষ্টি চাহিদা নিরুপনের লে কাজ করছে। চারটি কাঙ্খিত ফলাফলের (Expected Results) ভিত্তিতে জানো প্রকল্প এ কাজটি করছে। এই প্রকল্পটি সরকারী ও বেসরকারী সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সামর্থবৃদ্ধি এবং নারী ও কিশোরীদের মতায়নের মাধ্যমে কার্যকরী যোগাযোগ স্থাপনে কাজ করছে এবং বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় পুষ্টি পরিকল্পনা ২ (NPAN-২) বাস্তবায়নের জন্য সরকারের বিভিন্ন পুষ্টিসমন্বয় কমিটির সাথেও নিবিড় ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

জানো প্রকল্প রংপুর ও নীলফামারী জেলায় ২ লাখ ৭৫ হাজার ৪১৫ জন গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী মা, এবং ১ লাখ ৯০ হাজার ৩২২ জন পাঁচ বছরের নিচে শিশুদের পুষ্টির ক্ষেত্রে নিরাপদ তথ্য ও টেকসই সেবা নিশ্চিত করার জন্য ৬৪টি ইউনিয়ন পরিষদ, ২৭৩ টি কমিউনিটি কিনিক ও ৩৩০ টি স্কুলের সাথে নিবিড় ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 8903844359011263958

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item