পাগলাপীরে ভয়াবহ যানজটের গ্যাড়াকলে পথচারীরা ভোগান্তির শিকার

হাবিবুর রহমান সেলিম, পাগলাপীরঃ
রংপুরের ব্যস্ততম বাণিজ্যিক বন্দর পাগলাপীরে ভয়াবহ যানজটের গ্যাড়াকলে পথচারী সাধারন মানুষজন সহ বিভিন্ন যানবাহনের মালিক, চালক, যাত্রীরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। জানাগেছে সাম্পতি পাগলাপীর বন্দরের রংপুর-দিনাজপুর-ঢাকা হাইওয়ে ও ডালিয়া- বড়িমারী সহ জনগুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি সড়কে বাস, কোচ, ট্রাক, কার,মাইক্রো, অটো,সিএনজি, রিক্সা-ভ্যান সহ বিভিন্ন যানবাহন গুলো বেপরোয়া ভাবে চলাচল করায় যানজট আশঙ্কা হারে বেড়েই চলছে। যানজট নিরসনে কোতয়ালী সদর থানার অধীনে ট্রাফিক পুলিশ থাকলেও নির্দিষ্ট স্থানে ট্রাফিক সিগন্যাল বক্স না থাকায় ও নিয়ন্ত্রণের অভাবে প্রতিনিয়ত যানজটের জটলা বাঁধছে। বিশেষ করে ডালিয়া-বুড়িমারী সড়কের পাগলাপীর বন্দরের গোল চত্ত্বর, মাজার শরীফের সামন হতে সাজু’র খড়ির দোকান পর্যন্ত ২৮০মিটার সড়কটির আরসিসি ঢালাইয়ের কাজ চলায় যানজট ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। একই অবস্থা বিরাজ করছে রংপুর-দিনাজপুর-ঢাকা হাইওয়ে সহ পাগলাপীর বন্দরের ৫টি সড়কে। ১ থেকে ৫ মিনিট, কখনো কখনো ৫ মিনিট হতে ৩০ মিনিট পর্যন্ত যানজট চলে। এর ফলে যানজটের গ্যাড়াকলে পথচারী সহ সাধারন মানুষজন রাস্তা পারাপার হতে গিয়ে ছোট বড় দূর্ঘটনা সহ নানা অপ্রতিকর ঘটনার শিকার হচ্ছেন। স্থানীয় বিভিন্ন মহল সাংবাদিককে বলেন, পাগলাপীর বন্দরের যানজট নিরসনে কোতয়ালী সদর থানার অধীনে ট্রাফিক পুলিশ থাকলেও দায়িত্ব পালন চলছে হেঁটে বসে কখনো কখনো পায়চারী করে। দেশের বিভিন্ন জেলা বিভাগীয় শহরগুলোর গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ট্রাফিক সিগন্যাল বক্স থাকলেও পাগলাপীরে ট্রাফিক সিগন্যাল বক্স ছাড়াই চলছে যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশের দায়িত্ব কর্তব্য। তাই যানজট দূর্ঘটনা প্রতিরোধে অবিলম্বে পাগলাপীর বন্দরের গোল চত্ত্বরে ট্রাফিক সিগন্যাল স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন পাগলাপীরবাসী। 

পুরোনো সংবাদ

রংপুর 7898265468760296522

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item