নীলফামারীতে স্বাস্থ্যকর্মী সহ নতুন করে আরও ৫ জন করোনা পজেটিভ


নীলফামারী প্রতিনিধি॥ নীলফামারীতে নতুন করে ৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। আজ বুধবার(১ জুলাই/২০২০) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সিভিল সার্জন রণজিৎ কুমার বর্মন এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের নিকট হতে প্রাপ্ত ২৯ জুনের রির্পোটে এ তথ্য পাওয়া গেছে।
করোনা পজেটিভ নতুন ৫জনের এর মধ্যে নীলফামারী সদর উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের জয়চন্ডি ময়েন মাষ্টারপাড়া ৬০ বছরের ১ জন। সৈয়দপুর উপজেলায় ২ জনের মধ্যে ৩৫ বছরের নারী স্বাস্থ্যকর্মী ও নিয়ামতপুর মুন্সিপাড়া ১৫ বছরের কিশোরী। জলঢাকা উপজেলার পাঠানপাড়া (পাটবাড়ি) ৪৭ বছরের ১ জন। ডোমার উপজেলার চিকনমাটির ৫০ বছরের ১ জন।
জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র মতে, এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩৪৭জন। তাঁদের মধ্যে ২৫৩ জন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়েছেন। মারা গেছেন ১ নারীসহ ৬ জন। জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর ৩৪৭ জনের মধ্যে সদরে রয়েছেন ১১১ জন, জলঢাকা উপজেলায় ৬৮ জন, সৈয়দপুর উপজেলায় ৫০ জন, ডিমলা উপজেলায় ৪৯ জন, ডোমার উপজেলায় ৪০ জন ও কিশোরীগঞ্জ উপজেলায় ২৯ জন রয়েছেন। জেলায় পরীার জন্য এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৩ হাজার ২৫৭ জনের। ২ হাজার ৯৭৪টি নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে। এখনো রিপোর্টের অপোধীন ২৮৩ জন।
উল্লেখ যে, জেলায় করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে কিশোরীগঞ্জ উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের এক ব্যক্তি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার পর করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। একইভাবে সৈয়দপুর উপজেলার এক ব্যক্তি উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার পর নমুনা পরীায় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। এ ছাড়া নীলফামারী জেলা সদরের দুই ব্যক্তি নমুনা দেওয়ার পর উপসর্গ নিয়ে মারা যান। পরে রিপোর্টে তাঁদের করোনা পজিটিভ আসে। জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা ইউনিয়নে এক নারীসহ দুজনের করোনা শনাক্ত হওয়ার পর নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় তাঁরা মারা যান। মৃতদের একজনের বয়স ৩৫ বছর হলেও বাকি ৫ জনের বয়স ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে।

পুরোনো সংবাদ

হাইলাইটস 1766317293359509418

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item