সরকারি খাদ্য সহায়তা পেয়ে খুশি কুড়িগ্রামের চরাঞ্চলের মানুষ


হাফিজুর রহমান হৃদয়, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ     
চর পার্বতীপুর কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের একটি দূর্গম এলাকা। চারদিকে শুধু পানি আর পানি । মর্জিনা বেগম নিজস্ব পারিবারিক নৌকায় বেঁধেছে সংসার। ১ মাসের দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় তাদের চোখে মুখে শুধুই হতাশার ছায়া। মহামারী করোনার পাশাপাশি বন্যার এই দুর্যোগময় সময়ে কয়েকবার ত্রাণ সহায়তা পেলেও তা যথেষ্ট ছিল না। ঠিক এমন এক সময়ে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঈদের আগে সরকারিভাবে  খাদ্য সহায়তা পান তিনি । তার মতো এই চরের অনেক  পরিবার  সরকারি এই খাদ্য সহায়তা পেয়ে খুশি । বুধবার (৩০ জুলাই) বিকেলে সরকারি এসব ত্রানসামগ্রী বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম । 

দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় কুড়িগ্রামে ৪ শতাধিক চরাঞ্চলসহ ৪ লক্ষাধিক মানুষের চোখেমুখে ছিল অমা নিশার অন্ধকার।  বন্যা পরবর্তী ধান বীজ সহ সবধরনের পুনর্বাসনের নিশ্চয়তা পেয়ে আনন্দে এখন নির্বাক বানভাসি মানুষেরা। প্রধানমন্ত্রীর এই সহায়তা পেয়ে বানভাসিরা আবেগে আপ্লূত হয়ে পড়েন । এমনি এক বানভাসী বৃদ্ধা জয়নাল মিয়া,তিনি বলেন," কোমর পানিত হামরা কয়েকদিন থাকি চিড়া-মুড়ি খায়া আছি,কাইও খোজ নেয় নাই,আইজকে ত্রান পায়া খুব উপকার হইল ।"

ত্রান বিতরণ কালে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন,"প্রাকৃতিক দুর্যোগে  মানুষের পাশে রয়েছে  সরকার।  সবধরনের দুর্যোগ মোকাবেলায় সফল এই সরকার আগামীতেও কুড়িগ্রামের বানভাসিদের জন্য পুনর্বাসনের সকল পদক্ষেপ গ্রহন করবেন।পাশাপাশি কয়েকটি চরে ঈদের কোরবানী মাংশ বিতরনেরও উদ্যোগ নেয়া হয়েছে ।"

ত্রান বিতরণ কালে  এসময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা ইউএনও (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মইনুল ইসলাম, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান বিপ্লব প্রমুখ।

পুরোনো সংবাদ

কুড়িগ্রাম 5859276742994153901

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item