সৈয়দপুরে নারী দিয়ে অপহরনের ফাঁদ- গ্রেফতার তিন


নীলফামারী প্রতিনিধি নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর শহরে বিভিন্ন কৌশলে ধর্ণাঢ্য, চাকুরীজীবি বা ব্যবসায়ীদের ফাঁদে ফেলে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে মুক্তিপনের মাধ্যমে একটি সংঘবদ্ধ চক্র অপহরনের ফাঁদ পেতেছে। এমন ঘটানায় শনিবার (৬ মে) রাতে সৈয়দপুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে এক নারী সহ তিনজনকে গ্রেফতার করে। এ সময় ফাঁদে পড়া অপহৃত রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার পাইকান হাজীপাড়ার মৃত জসিম উদ্দিনের পুত্র আব্দুর রহিমকে (৫০) উদ্ধার করে। 
গ্রেফতাকৃতরা হলো নীলফামারী সদরের বাবরীঝাড় চৌপথি বাজারের মিঠু হোসেনের পছেলে লিমন হোসেন (২৫), লিমন হোসেনের স্ত্রী আকতারা বেগম (২১) এবং সৈয়দপুর শহরের আতিয়ার কলোনীর মৃত মোছলেম উদ্দিনের ছেলে আবু বিন আজাদ ওরফে শাওন (৩৫)। তাদের অপর নারী সহ আরো তিন সদস কে গ্রেফতারের চেস্টা করছে পুলিশ
থানা সূত্রে  জানা যায়, রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার পাইকান হাজীপাড়ার আব্দুর রহিম ব্যাক্তিগত কাজে শনিবার সকাল আনুমানিক ১০টার সময় সৈয়দপুর বাস টার্মিনালে আসে। এ সময় প্রতারক চক্রের তিন সদস্য নিজেকে পুলিশের সদস্য পরিচয় দিয়ে তাকে আটক করে। ইয়াবা রয়েছে এমন অভিযোগে তাকে থানায় নেয়ার কৌশলে সৈয়দপুর শহরের খেজুরবাগ মুন্সিপাড়ায় আবু বিন আজাদ ওরফে শাওনের বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে আব্দুর রহিমকে ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে বিব্রস্ত্র করে আকতারা বেগমকে দিয়ে জড়িয়ে ধরে অশ্লীল ভিডিও ধারন করে প্রতারক চক্রটি। সেই ভিডিও প্রকাশ করার হুমকি দেখিয়ে ওই ব্যাক্তির কাছে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। নিজের জীবন বাঁচানো ও মান-সম্মানের ভয়ে আব্দুর রহিম এক লাখ টাকা দিতে সম্মতি হয় এবং প্রতারক চক্রের ০১৭১৭৬৩৫১৫৩ নম্বরে তার পরিবার থেকে ২০ হাজার টাকা প্রেরণ করে। পাশাপাশি আব্দুর রহিমের নিকট থাকা ৮ হাজার টাকা নগদ দেয়া হয়। আব্দুর রহিমের পরিবার বিষয়টি বুঝতে পেরে সৈয়দপুর থানা পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ দ্রত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে নারী সহ তিন প্রতারককে গ্রেফতার ও আব্দুর রহিমকে উদ্ধার করে। পাশাপাশি আট হাজার টাকা ও বিকাশে প্রেরিত ২০ হাজার টাকা জব্দ করে। এ ঘটনায় আব্দুর রহিম নিজে বাদী হয়ে ৭জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলার নীলফামারীর ওই তিন সহ অন্যান্য হলেন, রংপুর বাস টার্মিনালের শ্যামল রায় (৪০) ও তার স্ত্রী বীনা রানী (৩৫), ঘাঘট পাড়ার নাজির (২২) ও সেনপাড়ার আরমান (২৮)।
সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত খান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বাকী আসামীদের গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে।#

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 3848190273112272205

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item