ডোমারে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার চাইতে গিয়ে চাকুরীচ্যুত ইমাম




আবু ফাত্তাহ্ কামাল পাখি, স্টাফ রিপোর্টার -করোনা ভাইরাস ( কোভিড -১৯) সংক্রামন পরিস্থিতিতে সারা দেশে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেলেও নীলফামারীর ডোমারে একটি মসজিদের ইমাম তা চাইতে গিয়ে চাকুরীচ্যুত হয়েছেন ঈদে
জানা গেছে, সারা দেশের ন্যায় ডোমার উপজেলার ৪৯১ টি মসজিদে গত ২১শে মে(২০২০ইং) মোট ২৪ লাখ ৫৫ হাজার টাকা বিতরন করেন ডোমার উপজেলা নিবার্হী অফিসার । মসজিদ প্রতি বিতরনকৃত পাচঁ হাজার  টাকা পান ইমাম ও মোয়াজ্বিনরা ।
উপজেলার বামুনিয়া ইউনিয়নে বামুনিয়া করানীপাড়া জামে মসজিদে তিন হাজার ৮ শত টাকা বেতনে ইমাম হিসাবে চাকুরী করতেন মোঃ মোস্তাকিন ইসলাম । উল্লেখিত মসজিদ কমিটি চুপিসারে ইমাম ও মোয়াজ্বিনের প্রধানমন্ত্রীন ঈদ উপহার (আর্থিক অনুদান) তুলে নেন । ঘটনাটি টের পেয়ে ইমাম কমিটির নিকট অনুদানের টাকা দাবী করেন । এতে কমিটি ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে চাকুরীচ্যুত করে পরবর্তী মাস থেকে না আসার জন্য নির্দেশ দেন ।
এ ব্যাপারে করানীপাড়া জামে মসজিদের সাবেক ইমাম মোঃ মোস্তাকিন ইসলাম জানান,কমিটি চুপিচুপি টাকা তুলেছে । এ বিষয়ে তাদের সংগে কথা বললে তারা আমাকে চার্জ করে বলে,এ টাকা মসজিদের উন্নয়নের জন্য । হুজুর দেমনিয়া (চালাক) হয়ে গেছে । আর হুজুরকে রাখা যাবে না । ওই টাকা আর আমাকে দেয়নি । ওখানে আট মাস চাকুরী করেছি । প্রতি মাসে তিন হাজার ৮ শত টাকা সম্মানি দিত । রমজান মাসে ওখানে কোন মোয়াজ্বিন ছিল না । আমিই আজানসহ মোয়াজ্বিনের বিভিন্ন কাজ করেছি । এটা অমানবিক । বাড়ীতে বিদ্যুৎ নাই । অন্য কোথাও থেকে চার্জ দিতে হয় । তাই সব সময় মোবাইল খোলা থাকে না । ওই টাকা দিয়ে বিদ্যুৎ নিতাম,ঈদের খরচও করতাম ।
এ ব্যাপারে ডোমার উপজেলা ইমাম ও মোয়াজ্বিন সমিতির সভাপতি মুফতি মাহমুদ বিন আলম বলেন,ঘটনাটি জেনেছি । এটা অমানবিক । তীব্র নিন্দা জানাই । প্রশাসনের দৃষ্টি আর্কষন করছি, ইমাম যেন তার চাকুরী ফিরে পায় । অনুদানের টাকাসহ সরকার কর্তৃক নিধারিত বেতনও পায় ।
এ ব্যাপারে ব্যাপারে করানীপাড়া জামে মসজিদের সম্পাদক ইজানুর রহমান জানান,মসজিদের উন্নয়ন করা হবে । এ টাকা ইমাম ও মোয়াজ্বিনদের জন্য বরাদ্ধ  জানালে বলেন,পরবর্তী ইমাম ও মোয়াজ্বিনকে দেওয়া হবে ।
এ ব্যাপারে ডোমার উপজেলা নিবার্হী অফিসার শাহিনা শবনম জানান,করোনার কারনে ইমাম ও মোয়াজ্বিনদের আর্থিক অবস্থা  খারাপ হয়েছে । মাননীয় ধর্মমন্ত্রী গত পরশু (৮ ই মে) এ বিষয়টিা স্পষ্ট করেছেন । এটা তারাই পাবেন । আমি এখনই ব্যবস্থা  নিচ্ছি ।
এ ব্যাপারে নীলফামারী ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ- পরিচালক মোঃ মারুফ রায়হান জানান,প্রধানমন্ত্রী বক্তব্যে  বলেছেন, এই টাকা ইমাম ও মোয়াজ্বিনদের ঈদ উপহার । কিন্ত সরকারী চিঠি অনুসারে মসজিদের কমিটির নামেই চেক বিতরন করা হয়েছে ।  এই অস্পষ্টতার সুযোগ নিয়েছে  তারা । কমিটির নিকট  টাকা চাইতে গিয়ে চাকরীচ্যুত করেছে,এটা অমানবিক ,দুঃখজনক ।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 222093533835377538

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item