নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে উৎপাদনের ধারা সচল রাখতে কৃষকের পাশে কৃষি বিভাগ


মোঃ শামীম হোসেন বাবু,কিশোরগঞ্জ(নীলফামারী)সংবাদদাতাঃ খাদ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ভয়াবহ করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাবের মাঝেও উৎপাদনের ধারা সচল রাখতে কৃষকের পাশে দাড়িয়েছে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা কৃষি বিভাগ। 
কৃষিপ্রধান এ উপজেলায় ফসলের মাঠে চলছে কর্মবীর কৃষকদের উৎপাদন যুদ্ধ। কৃষি উৎপাদন যাতে ব্যাহত না হয়, যেন অব্যাহত থাকে খাদ্যের যোগান সে লক্ষ্যে মাঠ পর্যায়ে কৃষকের পাশে থেকে বিভিন্ন পরামর্শসহ কৃষকদের সাহস যোগাচ্ছে কৃষি কর্মকর্তারা। 
উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে, এবারে কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ১১ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষাবাদ হয়েছে। ধান উৎপাদন হবে ৮০ হাজার ১৪৫ মেট্রিকটন। ৩ হাজার ২৫০ হেক্টর জমিতে ভুট্টার চাষাবাদ করা হয়েছে। ভুট্টা উৎপাদন হবে ৩৩ হাজার ৬শ ২০ মেট্রিকটন।  ২৪৪ হেক্টর জমিতে গম চাষাবাদ করা হয়েছিল, উৎপাদন হয়েছে ৭২০ মেট্রিকটন। এছাড়াও ১১৭০ হেক্টর জমিতে সবজী, ১০ হেক্টর জমিতে নিরাপদ সবজী এবং সমকালিন চাষাবাদের আওতায় পুষ্টি সমৃদ্ধ ব্রি ধান -৭৪ বিশ হেক্টর জমিতে আবাদ করা হয়েছে। 
পুটিমারী ইউনিয়নের কৃষক প্রভাশ চন্দ্র রায় বলেন, আমি ৭ বিঘা জমিতে ধান চাষ করেছি। সমস্ত জমির ধান আঁধাপাকা হয়েছে এ অবস্থায় ধান ক্ষেতে পোকার আক্রমনে আমি দিশেহারা হয়ে পড়েছিলাম। পরে আমি কৃষি অফিসে গিয়ে পরামর্শ চাইলে কৃষি কর্মকর্তা নিজে আমার ধান ক্ষেতে এসে আমাকে পরামর্শ প্রদান করেন। 
 কিশোরগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান জানান, করোনা ভাইরাস প্রার্দুভাবের মাঝে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কৃষি বিভাগ মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের পরামর্শসহ নিয়মিত বিভিন্ন কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। যেহুতু কিশোরগঞ্জ উপজেলায় বোরো ধান ও ভুট্টা কর্তনের সময় ঘনিয়ে এসেছে এ অবস্থায় ধান ও ভুট্টা ক্ষেতের বিভিন্ন রোগ পোকা মাকর দমনে কৃষকদের পরামর্শ অব্যাহত রয়েছে। পাশাপাশি সরকারীভাবে কৃষকদের ভুতুর্কি মুল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরন, সরকারী প্রণোদনা, গম ও ধান উৎপাদনকারী কৃষকের তালিকা তৈরী , নিরাপদ সবজী গ্রাম বাস্তবায়ন, করোনায় হাওর অঞ্চলে কৃষি শ্রমিক প্রেরন, করোনার ত্রান কাজে তদারকিসহ বিভিন্ন কাজ করছে কৃষি বিভাগ। 
নীলফামারীর কৃষি বিভাগের উপপরিচালক, নিখিল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, কৃষি এবং কৃষকের সাথে কৃষি বিভাগ সব সময় ছিল আছে। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির কারনে যাতে করে কোন ধরনের খাদ্য ঘাতটি না হয় সেজন্য আমরা বাড়তি সেবা দিচ্ছি কৃষকদের। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কোন জমি যেন পতিত না থাকে সেজন্য কৃষকদের বীজ সরবরাহ করছি। সেই সাথে মানুষের পুষ্টি নিশ্চিত করার জন্য পুষিট্ট সমৃদ্ধ ব্রি ধান ৭৪ এবং নিরাপদ সবজীর চাষাবাদ করা হচ্ছে। 

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 3145459840214227645

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item